Connect with us

হলিউড

‘এলভিস’কে ঘিরে স্টার সিনেপ্লেক্সের প্রতিযোগিতা

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

‘এলভিস’ সিনেমার পোস্টার

‘এলভিস’ সিনেমার পোস্টারে অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

কিংবদন্তি ব্রিটিশ সংগীতশিল্পী এলভিস প্রিসলিকে বলা হয় রক অ্যান্ড রোলের রাজা। তার বায়োপিক আসছে বড় পর্দায়। ‘এলভিস’ নামের সিনেমাটি ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্সের পরিবেশনায় আগামী ২৪ জুন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পাবে। একই দিন থেকে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে দেখা যাবে এটি। দর্শকদের জন্য রয়েছে আরও সুখবর।

‘এলভিস’কে ঘিরে একটি সংগীত প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে স্টার সিনেপ্লেক্স। এতে অংশ নিতে প্রতিযোগীদের এলভিস প্রিসলির যেকোনো একটি গান (সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য ১ মিনিট) কাভার করতে হবে। এরপর সেই ভিডিও ফেসবুক অথবা ইনস্টাগ্রামে #StarCineplex এবং #ElvisBD হ্যাশট্যাগ দিয়ে পোস্ট করলেই চলবে। সেসব পোস্টের এনগেজমেন্ট এবং বিচারকদের রায়ের ভিত্তিতে বিজয়ী পাবেন একটি ইয়ামাহা প্যাসিফিকা গিটার। এছাড়া সেরা পাঁচজনের জন্য থাকছে আকর্ষণীয় পুরস্কার।

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্য

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্যে অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া যাবে।

অস্ট্রেলিয়ার পরিচালক বাজ লারম্যান পরিচালনা করেছেন ‘এলভিস’। ২০১৩ সালে ‘দ্য গ্রেট গ্যাটসবি’ মুক্তির ৯ বছর পর পরিচালনায় ফিরলেন ৫৯ বছর বয়সী এই নির্মাতা।

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্য

‘এলভিস’ সিনেমায় (বাঁ থেকে) অস্টিন বাটলার ও টম হ্যাঙ্কস (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

‘এলভিস’ সিনেমার বিষয়বস্তু কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী এলভিস প্রিসলির জীবন এবং গানে তার অভূতপূর্ব খ্যাতি পাওয়া। রহস্যময় ম্যানেজার কর্নেল টম পার্কারের সঙ্গে তার ২০ বছরের জটিল সম্পর্কের আয়না দিয়ে দেখা হয়েছে এসব। সেই পথচলার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন এলভিসের জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও প্রভাবশালী ব্যক্তি প্রিসিলা প্রিসলি।

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্য

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্যে অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

৭৫তম কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে প্রতিযোগিতা শাখার বাইরে নির্বাচিত ‘এলভিস’ দর্শকদের মন জয় করেছে। গত ২৫ মে পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে ছিল এর ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার। প্রদর্শনী শেষে অতিথি ও দর্শকরা টানা ১০ মিনিট দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানান সিনেমার কলাকুশলীদের।

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্য

‘এলভিস’ সিনেমায় অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

এলভিস প্রিসলির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আমেরিকান অভিনেতা অস্টিন বাটলার। এলভিসের সংগীত জীবনে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন তার ম্যানেজার টম পার্কার। তার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন টম হ্যাঙ্কস। এলভিসের স্ত্রী প্রিসিলা প্রিসলি হিসেবে কাজ করেছেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা অলিভিয়া ডিজঞ্জ।

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্য

‘এলভিস’ সিনেমার দৃশ্যে অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

একাধারে নায়ক ও গায়ক এলভিস প্রিসলি পঞ্চাশের দশকে দারুণ সব গান উপহার দেন তিনি। তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘এলভিস প্রিসলি’ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। টানা ১০ সপ্তাহ বিলবোর্ড টপ চার্টের এক নম্বরে ছিল এটি। গানের জন্য গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডস তাঁকে দিয়েছে আজীবন সম্মাননা।

‘এলভিস’ সিনেমার পোস্টার

‘এলভিস’ সিনেমার পোস্টারে অস্টিন বাটলার (ছবি: ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

১৯৫৬ সালে এলভিস প্রিসলি অভিনয় শুরু করেন। সেই বছর তাঁর প্রথম সিনেমা ‘লাভ মি টেন্ডার’ হিট হওয়ায় প্রযোজকেরা তাঁর পেছনে লাইন ধরতে থাকেন। ৩১টি সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। ১৯৭৭ সালের জুনে ইন্ডিয়ানায় শেষবার কনসার্টে সংগীত পরিবেশন করেন প্রিসলি। পরের কনসার্ট ছিল একই বছরের ১৭ আগস্ট। কিন্তু এর আগের দিন তাঁকে নিজের ঘরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ৪২ বছর বয়সে মারা যান এলভিস।

হলিউড

ঢাকায় বড় পর্দায় আবার গডজিলা বনাম কং

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

‘গডজিলা এক্স কং: দ্য নিউ এম্পায়ার’ সিনেমার পোস্টার (ছবি:ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

মনস্টার জগতের দুই মহারথী গডজিলা ও কংয়ের দ্বৈরথ সিনেমাপ্রেমীদের কাছে বরাবরই বেশ উপভোগ্য। বিশাল আকারের এই দুটি চরিত্র আবার একসঙ্গে আসছে বড় পর্দায়। ‘গডজিলা এক্স কং: দ্য নিউ এম্পায়ার’ নামের সিনেমায় দেখা যাবে তাদের তাণ্ডব। ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্সের পরিবেশনায় আগামীকাল (২৯ মার্চ) আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে এটি। একই দিনে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে এই সিনেমা।

সর্বশেষ ২০২১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গডজিলা ভার্সেস কং’ সিনেমায় কিং কং ও গডজিলার দ্বৈরথ দেখা গেছে। করোনা মহামারিতে এটি দর্শকদের দারুণ সাড়া পায়। এবার আসছে এর বহুল প্রতীক্ষিত সিক্যুয়েল। লিজেন্ডারি পিকচার্সের প্রযোজনায় আগের পর্বের সাফল্যের সুবাদে এবারের কিস্তিও পরিচালনা করেছেন অ্যাডাম উইনগার্ড। আগের সিনেমার অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে ফিরছেন রেবেকা হল, ব্রায়ান টাইরি হেনরি ও কেইলি হটেল। নতুন যুক্ত হয়েছেন ড্যান স্টিভেনস, অ্যালেক্স ফার্নস, ফালা চেন, র‌্যাচেল হাউস।

‘গডজিলা এক্স কং: দ্য নিউ এম্পায়ার’ সিনেমার দৃশ্য (ছবি:ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

‘গডজিলা এক্স কং: দ্য নিউ এম্পায়ার’ হলো ‘মনস্টারভার্স’ ফ্রাঞ্চাইজের পঞ্চম কিস্তি, গডজিলা ফ্রাঞ্চাইজের ৩৮তম পর্ব এবং কিং কং ফ্রাঞ্চাইজের ১৩তম সিনেমা। ১ ঘণ্টা ৫৫ মিনিটের সিনেমাটি তৈরিতে খরচ হয়েছে ১৫ কোটি ডলার।

‘গডজিলা এক্স কং: দ্য নিউ এম্পায়ার’ সিনেমার দৃশ্য (ছবি:ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্স)

গডজিলা আর কং প্রাগৈতিহাসিক দুই দানব। কং নির্জন রহস্যময় দ্বীপ স্কাল আইল্যান্ডের বাসিন্দা আর গডজিলা প্রশান্ত মহাসাগরের জলরাশির গভীর তলদেশ থেকে উঠে আসে। নতুন সিনেমায় বিশ্বে লুকিয়ে থাকা এক বিশাল অনাবিষ্কৃত হুমকি নিয়ে তাদের মধ্যে লড়াই হবে। গডজিলা আণবিক নিশ্বাস ছাড়লেও শেষ পর্যন্ত কাবু হয় কংয়ের বাহুবলের কাছে, নাকি ‘অবমানব’ কংয়ের মানবিক সত্তার কাছে? সেই উত্তর মিলবে গল্পে। টাইটানদের ইতিহাস, তাদের উৎস, স্কাল আইল্যান্ড এবং তার বাইরের রহস্যগুলো তুলে ধরা হয়েছে এই সিনেমায়। সেই সঙ্গে রয়েছে পৌরাণিক যুদ্ধ।

পড়া চালিয়ে যান

হলিউড

চতুর্থবার মা হলেন ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’, এবারও কোলে মেয়ে

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

গল গ্যাদত (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

হলিউডের ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’ তারকা গল গ্যাদত চতুর্থবার মা হলেন। গত ৬ মার্চ তার কোল জুড়ে এসেছে আরেকটি কন্যাসন্তান। এতে চমকে গেছেন ভক্তরা। কারণ তার গর্ভধারণের কথা খুব একটা প্রকাশ্যে আসেনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে আচমকাই সুখবর দিয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী এই ইসরায়েলি অভিনেত্রী। মা হওয়ার খবর জানিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আমার মিষ্টি মেয়ে, তোমাকে স্বাগত। সন্তান ধারণ করা সহজ নয়। তবে তুমি আমার জীবনে একরাশ আলো নিয়ে এসেছো। তাই তোমার নাম রেখেছি অরি। হিব্রু ভাষায় যার অর্থ আলো। আমাদের হৃদয় তোমায় পেয়ে পূর্ণ।’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Gal Gadot (@gal_gadot)

গল গ্যাদতের পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, তার কোলে শুয়ে আছে সদ্যজাত সন্তান। মেয়েকে নিয়ে তৃপ্তিতে চোখ বুজে আছেন তিনি।

গল গ্যাদত আরো তিন কন্যাসন্তানের মা। ইসরায়েলি রিয়েল এস্টেট ডেভেলপার জ্যারোন ভার্সানের সঙ্গে তার দাম্পত্য জীবন ১৬ বছরের। ২০০৮ সালে বিয়ে করেন তার। তাদের প্রথম মেয়ে আলমার জন্ম হয় ২০১১ সালে। এরপর মায়া আসে ২০১৭ সালে। তিনি তৃতীয়বার মা হন ২০২১ সালে। তিন বছর পর আবার মাতৃত্বের স্বাদ পেলেন এই তারকা।

গল গ্যাদত (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

গল গ্যাদতের হাতে এখন আছে দুটি সিনেমা। এরমধ্যে ‘স্নো হোয়াইট’ সিনেমায় সর্বনাশী রানির ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। মার্ক ওয়েবের পরিচালনায় এতে নাম ভূমিকায় থাকছেন র‌্যাচেল জেগলার। এর চিত্রনাট্য লিখেছেন ‘বার্বি’র পরিচালক গ্রেটা গারউইগ এবং এরিন ক্রেসিডা উইলসন। এটি হলো ১৯৩৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ডিজনির অ্যানিমেটেড সিনেমা ‘স্নো হোয়াইট অ্যান্ড দ্য সেভেন ডোয়র্ফস’-এর রূপান্তর।

গল গ্যাদত (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

অন্যদিকে জুলিয়ান শ্নাবেলের পরিচালনায় ‘ইন দ্য হ্যান্ড অব দান্তে’ সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করছেন গল গ্যাদত। এতে আরো থাকছেন অস্কার আইজ্যাক, জেসন মোমোয়া, জেরার্ড বাটলার, আল পাচিনো, জন ম্যালকোভিচ। এটি নির্বাহী প্রযোজনা করছেন মার্টিন স্করসেসি।

গল গ্যাদতকে সর্বশেষ ২০২৩ সালের আগস্টে নেটফ্লিক্সের ‘হার্ট অব স্টোন’ সিনেমায় দেখা গেছে। এতে তার সহশিল্পী ছিলেন বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট।

পড়া চালিয়ে যান

হলিউড

একবছরে আয়ে হলিউডের শীর্ষ ১০ তারকা, একজনেরই ৮০০ কোটি টাকা

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

(বাঁ থেকে) অ্যাডাম স্যান্ডলার, মার্গো রবি ও টম ক্রুজ (ছবি: এক্স)

হলিউডে ২০২৩ সালে সবচেয়ে বেশি আয় করেছেন কোন তারকারা? আমেরিকান বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস সেই তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে শীর্ষে আছেন অভিনেতা অ্যাডাম স্যান্ডলার। নেটফ্লিক্সের ‘মার্ডার মিস্টেরি টু’সহ চারটি সিনেমার সুবাদে গত একবছরে তিনি পকেটে ভরেছেন ৭ কোটি ৩০ লাখ ডলার (৭৯৮ কোটি টাকা)।

নেটফ্লিক্সের জন্য ২০২৩ সালে চারটি সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজনা করেছেন অ্যাডাম স্যান্ডলার। রোমান্টিক-কমেডি থ্রিলার ধাঁচের সিনেমা ‘মার্ডার মিস্টেরি’র (২০১৯) সিক্যুয়েলের গল্প দুর্ভাগা বেসরকারি গোয়েন্দা স্বামী-স্ত্রীকে ঘিরে। নেটফ্লিক্সে গত বছর ১৭ কোটি ৩০ লাখ ঘণ্টা ভিউ নিয়ে সবচেয়ে বেশি দেখা সিনেমার তালিকায় পঞ্চম হয় এটি।

গত ২১ নভেম্বর মুক্তিপ্রাপ্ত অ্যানিমেটেড সিনেমা ‘লিও’র চিত্রনাট্য লেখা ও প্রযোজনা ছাড়াও প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন অ্যাডাম স্যান্ডলার। এছাড়া ‘ইউ আর সো নট ইনভাইটেড টু মাই ব্যাট মিৎজভাহ’ ও ‘মার্ডার মিস্টেরি টু’ প্রযোজনার সঙ্গে অভিনয় এবং ‘দ্য আউট-লস’ প্রযোজনা করেছেন ৫৭ বছর বয়সী এই আমেরিকান তারকা। চলতি বছর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত ‘স্পেসম্যান’।

২০২৩ সালের সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমা ‘বার্বি’র অভিনেত্রী ও প্রযোজক মার্গো রবি আছেন বেশি আয়ের তারকার তালিকায় দুই নম্বরে। গত বছরের আরেক হিট ‘সল্টবার্ন’ প্রযোজনা করেছেন তিনি। ৩৩ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলিয়ান তারকা তালিকায় সবচেয়ে কনিষ্ঠ। ২০২৩ সালে তার আয়ের পরিমাণ ৬৪৫ কোটি টাকা।

ফোর্বসের তালিকায় তিন নম্বরে আছে টম ক্রুজের নাম। তার আয় ৪৯২ কোটি টাকা। চারে যৌথভাবে জায়গা করে নিয়েছেন ‘বার্বি’ তারকা রায়ান গসলিং এবং ম্যাট ডেমন। তাদের আয় ৪৭০ কোটি টাকা করে। ‘মার্ডার মিস্টেরি টু’তে অ্যাডাম স্যান্ডলারের সহশিল্পী জেনিফার অ্যানিস্টন আছেন ছয় নম্বরে। তার আয় ৪৬০ কোটি টাকা।

তালিকার সাত থেকে ১০ নম্বরে আছেন যথাক্রমে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও (৪৪৮ কোটি টাকা), জেসন স্টেটহাম (৪৪৮ কোটি টাকা), বেন অ্যাফ্লেক (৪১৫ কোটি টাকা), ডেনজেল ওয়াশিংটন (২৬২ কোটি টাকা)।

২২ বছর পর ফোর্বসের হিসাবে হলিউডের শীর্ষ ১০ উপার্জনকারীর তালিকায় এক নম্বরে জায়গা পেলো অ্যাডাম স্যান্ডলারের নাম। ২০২২ সালে শীর্ষে ছিলেন টাইলার পেরি। এর আগে তিন বছর এক নম্বরে ছিলেন ডোয়াইন জনসন। কিন্তু এবারের তালিকায় তাদের কেউই শীর্ষ দশে নেই।

(বাঁ থেকে) অ্যাডাম স্যান্ডলার, মার্গো রবি, টম ক্রুজ ও রায়ান গসলিং (ছবি: এক্স)

ফোর্বসের হিসাবে ২০২৩ সালে হলিউডের শীর্ষ ১০ উপার্জনকারী
১. অ্যাডাম স্যান্ডলার (৭ কোটি ৩০ লাখ ডলার)
২. মার্গো রবি (৫ কোটি ৯০ লাখ ডলার)
৩. টম ক্রুজ (৪ কোটি ৫০ লাখ ডলার)
৪. রায়ান গসলিং (৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার)
৫. ম্যাট ডেমন (৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার)
৬. জেনিফার অ্যানিস্টন (৪ কোটি ২০ লাখ ডলার)
৭. লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও (৪ কোটি ১০ লাখ ডলার)
৮. জেসন স্টেটহাম (৪ কোটি ১০ লাখ ডলার)
৯. বেন অ্যাফ্লেক (৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার)
১০. ডেনজেল ওয়াশিংটন (২ কোটি ৪০ লাখ ডলার)

পড়া চালিয়ে যান

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ