Connect with us

ঢালিউড

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২২: বেশি স্বীকৃতি কোন কোন সিনেমার ঝুলিতে

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

চঞ্চল চৌধুরী

‘হাওয়া’ সিনেমায় চঞ্চল চৌধুরী (ছবি: ফেসবুক)

দেশের ৪৭তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হলো। এবার এককভাবে সেরা অভিনেতা হয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী। মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’য় মাছ ধরার বড় নৌকা ‘নয়নতারা’র সরদার চাঁন মাঝি চরিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের স্বীকৃতি পেলেন তিনি। এটি সেরা অভিনেতা হিসেবে তার তৃতীয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ‘মনপুরা’ (২০০৯) ও ‘আয়নাবাজি’র (২০১৬) জন্য আরো দুইবার সেরা করা হয় তাকে।

এবার যৌথভাবে সেরা অভিনেত্রীর স্বীকৃতি পেয়েছেন জয়া আহসান ও রিকিতা নন্দিনী শিমু। আবহমান বাংলার সার্কাস শিল্প নিয়ে মাহমুদ দিদার পরিচালিত ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় সার্কাসকন্যা বিউটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া। এটি সেরা অভিনেত্রী হিসেবে তার পঞ্চম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ‘গেরিলা’ (২০১১), ‘চোরাবালি’ (২০১২), ‘জিরো ডিগ্রি’ (২০১৫) ও ‘দেবী’র (২০১৮) জন্য আরো চারবার এককভাবে এই সম্মান পেয়েছেন তিনি।

জয়া আহসান

‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় জয়া আহসান (ছবি: ইমপ্রেস টেলিফিল্ম)

অন্যদিকে রুবাইয়াত হোসেন পরিচালিত ‘শিমু’তে পোশাক উৎপাদন কারখানার শ্রমিকের ভূমিকায় মন জয় করেছেন রিকিতা নন্দিনী শিমু। তার অভিনীত সিনেমাটি সর্বাধিক চারটি শাখায় সেরা হয়েছে। এর গল্প ২৩ বছর বয়সী এক তরুণীকে কেন্দ্র করে। সে ঢাকার একটি পোশাক উৎপাদন কারখানার শ্রমিক। কর্মক্ষেত্রে অধিকার ও ন্যায্য পারিশ্রমিক আদায়ের জন্য সহকর্মীদের নিয়ে একটি সংঘ গঠনের চেষ্টা করে মেয়েটি। তার বিশ্বাস, নিজেদের পথ খুঁজে পেতে নারীদের অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়তে হবে।

রুবাইয়াত হোসেন এর আগে নিজের পরিচালিত ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’-এর (২০১৬) জন্য সেরা সংলাপ রচয়িতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। পরিচালক হিসেবে এবারই প্রথম স্বীকৃতি পেলেন তিনি। ‘শিমু’ তার পরিচালিত তৃতীয় সিনেমা। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের সুবাদে প্রথমবার সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন রিকিতা নন্দিনী শিমু। তারেক মাসুদের ‘রানওয়ে’র মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তার। ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’ ছিলো তার দ্বিতীয় সিনেমা।

‘শিমু’ সিনেমার দৃশ্য (ছবি: খনা টকিজ)

পরিচালক ও অভিনেত্রীর পাশাপাশি ‘শিমু’র জন্য সুজন মাহমুদ সেরা সম্পাদক এবং তানসিনা শাওন সেরা পোশাক ও সাজসজ্জা শাখায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

এবার তিনটি করে পুরস্কার পেয়েছে ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’, ‘পরাণ’, ‘অপারেশন সুন্দরবন’, ‘রোহিঙ্গা’ এবং ‘পায়ের ছাপ’। এরমধ্যে যৌথভাবে সেরা সিনেমা হয়েছে ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’ এবং ‘পরাণ’।

‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’ সিনেমার দৃশ্য (ছবি: ধ্রুপদী চিত্রলোক)

মুহাম্মদ কাইয়ুম প্রযোজিত ও পরিচালিত ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’য় বাংলাদেশের হাওর অঞ্চলের ভূপ্রকৃতি, জলবায়ু ও চাষাবাদের পটভূমিতে মানুষের জীবন, ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি তুলে ধরা হয়েছে। এতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়িতা মহলানবিশ ও উজ্জ্বল কবির হিমু। তাদের সঙ্গে দারুণ অভিনয়ের জন্য শিশুশিল্পী শাখায় বিশেষ পুরস্কার পেয়েছে ফারজিনা আক্তার। সেরা সিনেমা প্রযোজকের পাশাপাশি সেরা চিত্রনাট্যকার হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন মুহাম্মদ কাইউম।

শরিফুল রাজের সঙ্গে বিদ্যা সিনহা মিম

‘পরাণ’ সিনেমার দৃশ্যে শরিফুল রাজের সঙ্গে বিদ্যা সিনহা মিম (ছবি: লাইভ টেকনোলজিস)

রায়হান রাফী পরিচালিত ‘পরাণ’ প্রযোজনা করেছে লাইভ টেকনোলজিস লিমিটেডের তামজিদ উল আলম। সেরা সিনেমা প্রযোজক হিসেবে পুরস্কার পাচ্ছেন তিনি। ২০২২ সালের ১০ জুলাই মুক্তির পর অভাবনীয় ব্যবসায়িক সাফল্য পেয়েছে এই সিনেমা। বরগুনার আলোচিত রিফাত হত্যা মামলার ছায়া অবলম্বনে ত্রিভুজ প্রেমের গল্পে সাজানো হয়েছে এটি।

নাসিরউদ্দিন খান (ছবি: ফেসবুক)

‘পরাণ’ সিনেমায় পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য সেরা পার্শ্ব-অভিনেতা হয়েছেন নাসির উদ্দিন খান। এটাই তার প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী হয়েছেন আফসানা মিমি। গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘পাপ-পুণ্য’তে চেয়ারম্যানের বাড়ির গৃহকর্মী পারুল চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। কাহিনির শেষ পর্যায়ে জানা যায়, পারুলের একমাত্র ছেলের বাবা চেয়ারম্যান। এটাই তার প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

মুনতাহা এমিলিয়া (ছবি: ফেসবুক)

আশুতোষ সুজন পরিচালিত ‘দেশান্তর’ সিনেমার জন্য সেরা খল অভিনেতা সুভাশিষ ভৌমিক এবং দীপংকর দীপন পরিচালিত ‘অপারেশন সুন্দরবন’-এর সুবাদে সেরা কৌতুক অভিনেতা হয়েছেন দীপু ইমাম। অভিনয়ের জন্য যৌথভাবে সেরা শিশুশিল্পী হয়েছে সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ডের ‘রোহিঙ্গা’ সিনেমার বৃষ্টি আক্তার এবং সাইদুল ইসলাম রানা পরিচালিত ‘বীরত্ব’র মুনতাহা এমিলিয়া।

‘আদর্শ খোলা বই’ গানের মিউজিক ভিডিওতে বাপ্পা মজুমদার (ছবি: আরটিভি)

সংগীত শাখাগুলোর মধ্যে যৌথভাবে সেরা গায়কের স্বীকৃতি পেয়েছেন বাপ্পা মজুমদার ও চন্দন সিনহা। দুই জনেরই এটি দ্বিতীয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। বাপ্পা এর আগে ‘সত্তা’ (২০১৯) সিনেমার জন্য সেরা সুরকার হন। ‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমার ‘এ মন ভিজে যায়’ গানটি এবার সেরা গায়কের সম্মান এনে দিলো। এর কথা লিখেছেন গোধূলি শর্মা, সুর করেছেন অম্লান চক্রবর্তী, সংগীতায়োজনে বব এসএন ও ইমন চৌধুরী।

অন্যদিকে ইস্পাহানি আরিফ জাহান পরিচালিত ‘হৃদিতা’য় কবির বকুলের কথা ও ইমরান মাহমুদুলের সুর-সংগীতে ‘ঠিকানাবিহীন তোমাকে’ গানের জন্য এবার যৌথভাবে সেরা গায়ক হয়েছেন চন্দন সিনহা। ২০১৩ সালে সাফিউদ্দিন সাফি পরিচালিত ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী’তে কবির বকুলের কথা ও কৌশিক হোসেন তাপসের সুরে ‘আমি নিঃস্ব হয়ে যাবো’ গানটির জন্য এককভাবে সেরা গায়কের পুরস্কার পান তিনি।

আতিয়া আনিসা (ছবি: ফেসবুক)

‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী’র জন্য সেরা সংগীত পরিচালক হওয়া শওকত আলী ইমন এবার পেয়েছেন সেরা সুরকারের স্বীকৃতি। ‘পায়ের ছাপ’ সিনেমার ‘এই শহরের পথে পথে’ গানের জন্য এই পুরস্কার যোগ হলো তার নামের পাশে। একই গানের সুবাদে প্রথমবার সেরা গায়িকা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন আতিয়া আনিসা। গানটি লিখেছেন ‘পায়ের ছাপ’-এর পরিচালক সাইফুল ইসলাম মাননু। একই সিনেমার জন্য সেরা সংগীত পরিচালক হয়েছেন রিপন খান। এটাই তার প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

রবিউল ইসলাম জীবন (ছবি: ফেসবুক)

‘পরাণ’ সিনেমার ‘ধীরে ধীরে তোর স্বপ্নে’ গানের জন্য সেরা গীতিকার হয়েছেন রবিউল ইসলাম জীবন। এর সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন ইমন চৌধুরী। তার সঙ্গে এটি গেয়েছেন জিনিয়া জাফরিন লুইপা।

রিপন নাথ (ছবি: ফেসবুক)

কারিগরি শাখার মধ্যে ‘হাওয়া’র জন্য সেরা শব্দগ্রাহক হয়েছেন রিপন নাথ। এটি তার পঞ্চম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ‘চোরাবালি’ (২০১২), ‘আয়নাবাজি’ (২০১৬), ‘ঢাকা অ্যাটাক’ (২০১৭) ও ‘ন ডরাই’ (২০১৯) সিনেমার জন্য আরো চারবার এককভাবে এই সম্মান পেয়েছেন তিনি।

যৌথভাবে সেরা কাহিনিকার হয়েছেন ফরিদুর রেজা সাগর (দামাল) ও খোরশেদ আলম খসরু (গলুই)। সেরা সংলাপ রচয়িতার পুরস্কার জিতেছেন ‘গলুই’ সিনেমার পরিচালক এসএ হক অলিক।

‘রোহিঙ্গা’র জন্য হিমাদ্রি বড়ুয়া সেরা শিল্প নির্দেশক এবং আসাদুজ্জামান মজনু সেরা চিত্রগ্রাহক হয়েছেন। ‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমার জন্য সেরা রূপসজ্জাকর হয়েছেন খোকন মোল্লা।

এবার ২৭টি শাখায় বেশ কয়েকটি সিনেমা পুরস্কৃত হয়েছে। এস.এম. কামরুল আহসান পরিচালিত ‘ঘরে ফেরা’ সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমার স্বীকৃতি পেয়েছে। সেরা প্রামাণ্যচিত্র হয়েছে ড. এ জে এম শফিউল আলম খানের ‘বঙ্গবন্ধু ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হবেন ‘ওরা ১১ জন’ সিনেমার নায়ক খসরু এবং চিত্রনায়িকা-নির্মাতা রোজিনা।

কোন সিনেমার ঝুলিতে কয়টি পুরস্কার

  • ৪টি পুরস্কার
    শিমু
  • ৩টি পুরস্কার
    কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া
    পরাণ
    অপারেশন সুন্দরবন
    পায়ের ছাপ
    রোহিঙ্গা
  • ২টি পুরস্কার
    হাওয়া
    গলুই
  • ১টি পুরস্কার
    বিউটি সার্কাস
    পাপ-পুণ্য
    দেশান্তর
    বীরত্ব
    হৃদিতা

ঢালিউড

জোড়া সিনেমা নিয়ে ফিরছেন আফরান নিশো

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

আফরান নিশো (ছবি: ফেসবুক)

‘সুড়ঙ্গ’ পেরিয়ে ফিরছেন অভিনেতা আফরান নিশো। নতুন দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। দুটিতেই প্রধান চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। তবে পরিচালক ও ছবি দুটির নাম এখনো জানা যায়নি। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে এসব ঘোষণা আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নতুন সিনেমা দুটি প্রযোজনা করবে এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট। ভারতীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস (এসভিএফ) ও ঢাকার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে গঠিত হয়েছে এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেড। এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল ও এসভিএফ-এর চেয়ারম্যান মহেন্দ্র সোনি।

২০২৩ সালে ঈদুল আজহায় রায়হান রাফী পরিচালিত ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় আফরান নিশোর। এতে তার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। এরপর থেকে তার নতুন কাজের ব্যাপারে কৌতূহল ছিলো ভক্ত-দর্শকদের। অবশেষে বড় পর্দায় ফেরার সুখবর দিলেন তিনি।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

‘তুফান’ টিজারে শাকিবের হুংকার

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের আলোচিত সিনেমা ‘তুফান’-এর টিজার প্রকাশ্যে এলো। রায়হান রাফীর পরিচালনায় এতে অপ্রতিরোধ্য গ্যাংস্টারের আমেজে দেখা গেছে তাকে। বিভিন্ন অ্যাকশন দৃশ্যে তার লুক ও মেজাজ আভাস দিচ্ছে, তুফান বয়ে যাবে সিনেমাহলে!

১ মিনিট ২৮ সেকেন্ডের টিজারের শুরুতে শাকিব বলেন, ‌‘পূর্বের কথা মোতাবেক, এখন থেকে পুরো দেশকে তুফানের হাতে তুলিয়া দেবো। সে যা চাইবে পাইবে, যা করিতে চাইবে করিবে। তাহাকে কোনো কিছুতেই বাধা দেয়ার এখতিয়ার কেউই রাখিতে পারিবে না। আর এর ব্যত্যয় ঘটিলে…।’ এরপরই শুরু হয় তার আগ্রাসী কর্মকাণ্ড।

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

টিজারে শেষ দৃশ্যের আগে অন্যমাত্রা নিয়ে হাজির হন অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। তিনি উপহাস মোড়ানো হাসি দিয়ে বলেন, ‘তুফান খুব ভয় পাইছিরে।’ এরপর বাথটাবে পানিতে বসে থাকা শাকিব হুংকার ছাড়েন।

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে চঞ্চল চৌধুরী (ছবি: চরকি)

গতকাল (৭ মে) বিকেলে সিনেমাটির তিন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা আই, চরকি ও এসভিএফ-এর সোশ্যাল মিডিয়া পেজে ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয় টিজার।

টিজারে ধুন্ধুমার অ্যাকশন দৃশ্যের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে টাইটেল গান। এর কথা এমন– ‘প্রলয়ের তুফান, আসছে এ তুফান, প্রলয়ের তুফান, থামাও এ তুফান’। এটি গেয়েছেন আরিফ রহমান জয়। তার সঙ্গে সহ-কণ্ঠ দিয়েছেন সাম্যব্রত দৃপ্ত। র‍্যাপ গেয়েছেন র‍্যাপস্টা দাদু। এর কথা লিখেছেন তাহসান শুভ, সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন নাভেদ পারভেজ।

টিজার প্রসঙ্গে পরিচালক রায়হান রাফী বলেন, “বাংলা সিনেমাকে বিশ্ব দরবারে নতুনভাবে চেনাবে ‘তুফান’। অনেক সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি পরিবর্তন করে। ‘তুফান’ তেমন একটি সিনেমা হতে যাচ্ছে। বাংলা সিনেমার মানদণ্ড অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে। বলা যায়, ‘তুফান’ আমার জীবনের একটি স্বপ্নের প্রকল্প। শাকিব ভাইকে এই সিনেমায় পাওয়া আশীর্বাদ।”

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

‘তুফান’ দর্শকের মধ্যে ঝড় তুলবে বলে আশাবাদী এসভিএফ-এর পরিচালক ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা মহেন্দ্র সোনি, আলফা-আই স্টুডিওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল এবং চরকির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি। তিনজনই জানিয়েছেন, টিজার প্রকাশের পর দারুণ সাড়া মিলছে।

আসন্ন ঈদুল আজহায় সিনেমাহলে মুক্তি পাবে ‘তুফান’। এতে শাকিব ও চঞ্চলের পাশাপাশি অভিনয় করেছেন মিমি চক্রবর্তী, মাসুমা রহমান নাবিলাসহ অনেকেই।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

‘ফাতিমা’ সিনেমাহলে কবে আসছে জানালেন ফারিণ

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ফেসবুক)

বাংলাদেশের বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণের। তার নতুন সিনেমা ‘ফাতিমা’ আগামী ২৪ মে সিনেমাহলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এতে নাম ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে।

গতকাল (৫ মে) সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ফাতিমা’র পোস্টার শেয়ার দিয়ে ফারিণ লিখেছেন, “আসছে দুই সময়ের দুই সংগ্রামের আখ্যান ‘ফাতিমা’। দেখুন আগামী ২৪ মে থেকে আপনার কাছের সিনেমা হলে!”

‘ফাতিমা’র পোস্টারে তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: আউটকাস্ট ফিল্মস)

পোস্টারে দেখা যাচ্ছে, তাসনিয়া ফারিণ একদৃষ্টিতে একদিকে তাকিয়ে আছেন। এতে ১৯৭১ ও ২০২৩ সাল উল্লেখ রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময়কার ও ২০২৩ সালের দুটি পৃথক সময়ের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে সিনেমাটি। পোস্টারের নিচের অংশে গরুর গাড়িতে চড়ে ও পায়ে হেঁটে অনেককে আশ্রয়ের খোঁজে যেতে দেখা যাচ্ছে।

‘ফাতিমা’য় অসাধারণ অভিনয়ের জন্য ইরানের ৪২তম ফজর আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পুরস্কার পেয়েছেন তাসনিয়া ফারিণ। ইস্টার্ন ভিস্তা শাখায় ক্রিস্টাল সিমোর্গ স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে তাকে।

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ফেসবুক)

ইরানের পর গত বছর অরল্যান্ডো ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এবং ইন্ডি গ্যাদারিং আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের অফিসিয়াল সিলেকশনে স্থান পায় ‘ফাতিমা’।

‘ফাতিমা’য় তাসনিয়া ফারিণ ছাড়াও অভিনয় করেছেন ইয়াশ রোহান, সংগীতশিল্পী পান্থ কানাই, তারিক আনাম খান, মানস বন্দ্যোপাধ্যায়, আয়েশা মনিকা, গাউসুল আলম শাওন।

আউটকাস্ট ফিল্মস প্রযোজিত ‘ফাতিমা’র নাম শুরুতে ছিলো ‘দাহকাল’। ২০১৭ সালে এর শুটিং শুরু হলেও অর্থনৈতিক জটিলতার কারণে কাজ শেষ করে সাত বছর লেগেছে। চিত্রগ্রহণ করেছেন তুহিন তমিজুল।

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ইয়াকুব)

সিনেমাটি প্রযোজনা ও পরিচালনা করেছেন ধ্রুব হাসান। গল্পটি তারই। তিনি ও আদনান হাবিব চিত্রনাট্য লিখেছেন। তারাই সম্পাদনা ও নির্বাহী প্রযোজকের দায়িত্ব পালন করেছেন। সহ-প্রযোজক আরমান কাদরী, আরজু মানারা বেগম, শামসুর রাহমান আলভী ও তুনাজ্জিনা চৌধুরী পুনম। শিল্প নির্দেশনায় তারেক বাবলু, শিহাব নুরুন নবী ও উত্তম গুহ। শব্দসজ্জা করেছেন শৈব তালুকদার। পোশাক পরিকল্পনায় জুনায়েদ বোগদাদি জিমি ও এদিলা ফারিদ তুরিন।

গানের সুর ও সংগীত এবং আবহ সংগীত পরিচালনা করেছেন পাভেল আরীন। শারমিন সুলতানা সুমি লেখার পাশাপাশি একটি কণ্ঠ দিয়েছেন। এছাড়া রয়েছে সোমনূর মনির কোনালের গাওয়া একটি গান।

পশ্চিমবঙ্গের ‘আরো এক পৃথিবী’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তাসনিয়া ফারিণের। এটি মুক্তি পায় ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে।

পড়া চালিয়ে যান

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ