Connect with us

বলিউড

একটি টিকিট কিনলে একটি ফ্রি অফারের সুবাদে সিনেমা হিট!

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ সিনেমায় ভিকি কৌশল ও সারা আলি খান (ছবি: ম্যাডক ফিল্মস)

বলিউড তারকা ভিকি কৌশল ও সারা আলি খান অভিনীত ‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ বক্স অফিসে চমকপ্রদ সাফল্য পেয়েছে। বলিউডে ইদানীং বিশাল ক্যানভাসের সিনেমা যেখানে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে, সেখানে মাঝারি বাজেটের কমেডি সিনেমাটি মুক্তির প্রথম পাঁচ দিনে ৩০ কোটি ৬০ লাখ রুপি আয় করে নিয়েছে। সব ঠিকঠাক চললে এই অঙ্ক শেষ পর্যন্ত অর্ধশত কোটি রুপি ছাড়াতে পারে।

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ প্রথম তিন দিনে আয় করে ২২ কোটি ৫৯ লাখ রুপি। সিনেমাটি নিয়ে দর্শকদের এতো আগ্রহ কেউ প্রত্যাশা করেনি। ফলে এটি হয়ে উঠেছে ২০২৩ সালে বলিউডের অন্যতম চমক।

বিনামূল্যে টিকিট অফারের মাধ্যমে দর্শকদের একটি বৃহত্তর অংশের কাছে যেতে পেরেছে সিনেমাটি। এর বিনিময়ে মুখে মুখে দ্রুত সিনেমাটির কথা ছড়িয়ে পড়ায় দর্শক বেড়েছে। এটা ঠিক যে, অফার না থাকলে দর্শকদের অনেকেই এতো বেশি দাম দিয়ে টিকিট কিনতেন না।

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ সিনেমায় ভিকি কৌশল ও সারা আলি খান (ছবি: ম্যাডক ফিল্মস)

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’র প্রযোজক-পরিবেশকরা নির্দিষ্ট অ্যাপের (বুক মাই শো) মাধ্যমে একটি টিকিট কিনলে একটি টিকিট বিনামূল্যে দেওয়ার অভিনব কৌশল বেছে নিয়েছেন। এমন অফার দর্শকদের আকৃষ্ট করতে বড় ভূমিকা রেখেছে। অবশ্য ট্রেলার, কন্টেন্ট ও গানের সুবাদে এর প্রতি কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে মুক্তির আগেই।

তবুও বলিউড বিশ্লেষকদের ধারণা, বিনামূল্যে টিকিট দেওয়ায় সিনেমাটি হিট হয়েছে। তাদের মন্তব্য, শুধুই বুক মাই শো অ্যাপের অফারটির সুবাদে হিট হয়েছে ‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’। তবে পরিচালক লক্ষ্মণ উটেকর এই যুক্তি মানতে রাজি নন। বক্স অফিস সাফল্য উপলক্ষে গতকাল (৭ জুন) মুম্বাইয়ের একটি মাল্টিপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তার সঙ্গে ছিলেন ভিকি, সারা ও প্রযোজক দিনেশ বিজন।

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ সিনেমায় ভিকি কৌশল ও সারা আলি খান (ছবি: ম্যাডক ফিল্মস)

লক্ষ্মণ উটেকর বলেন, ‘আরে ভাই, আপনি যদি পচা টমেটো বিক্রি করতে বসে বলেন– এক কেজিতে আধা কেজি ফ্রি, তাতে কুকুরও কি সেটা কিনবে? জিনিস যদি ভালো হয় তাহলে ফ্রি না দিলেও মানুষ নেবে। আচ্ছা, পানি পানের জন্য মানুষ কুয়ার সামনে আসে। কিন্তু পানিতে দুর্গন্ধ থাকলে কেইবা পান করতে চায়?’

জানা যায়, মুক্তির প্রথম তিন দিনে আড়াই লাখ টিকিট দেওয়া হয়েছে বিনামূল্যে। একেকটি টিকিটের গড় মূল্য ২৫০ রুপি। তাতে আড়াই লাখ টিকিটের মূল্য দাঁড়ায় ৬ কোটি ২৫ লাখ রুপি। এরমধ্যে ৫ কোটি ৩০ লাখ রুপি প্রযোজককে গুনতে হবে। কারণ সিনেমা হল তো আর বিনামূল্যে কিছু দেয়নি। পরে আরো ৫০ হাজার টিকিট ফ্রি পেয়েছেন দর্শকরা। সেক্ষেত্রে প্রযোজকের মোট গচ্চা যাচ্ছে সাড়ে ৭ কোটি রুপি।

যদিও বাণিজ্য বিশ্লেষকরা মনে করছেন, একটি টিকিট কিনলে একটি ফ্রি অফার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জন্য দীর্ঘমেয়াদে টেকসই নয়। কারণ শেষ পর্যন্ত প্রযোজককেই টিকিট কেনার জন্য অর্থ বিনিয়োগ করতে হচ্ছে। সেক্ষেত্রে প্রণোদনার পরিবর্তে টিকিটের দাম সাশ্রয়ী রাখা যেতে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে লক্ষ্মণ উটেকর, ভিকি কৌশল, সারা আলি খান ও দিনেশ বিজন (ছবি: টুইটার)

সংক্ষিপ্ত নোটিশে সিনেমাটি মুক্তি দেওয়ার চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গেও কথা বলেছেন লক্ষ্মণ উটেকর, “১৫ দিন আগে দিনো স্যার আমাকে ফোন করে জানতে চাইলেন– স্যার, রেডি হয়ে যাবে তো?’ আমি বললাম, হয়ে যাবে। তিনি প্রশ্ন করেন– ‘কতদিনের মধ্যে?’ উত্তর দিলাম, ১০ দিনে। তখন তার মুখে শুনলাম, ‘আট দিনে হয়ে যাবে?’ তাকে বললাম, সেটাও হয়ে যাবে।”

সংবাদ সম্মেলনে লক্ষ্মণ উটেকর যোগ করেন, ‘ভালো সিনেমা বানানো সম্ভব। আমিও সেটা পারি। তবে দর্শকদের কাছে সিনেমা পৌঁছে দেওয়াটা দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে। দিনো স্যারকে ধন্যবাদ, কারণ তিনিই সিনেমা হলের দরজা খুলে দিয়েছেন। বলা হয়ে থাকে, বড় ক্যানভাসের সিনেমাই শুধু চলে। কিন্তু দিনো স্যার প্রমাণ করেছেন, ভালো বিষয়বস্তু হলে যেকোনও সিনেমা বক্স অফিসে সফল হয়।’

ভিকি কৌশল ও সারা আলি খান (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

প্রযোজককে ধন্যবাদ দিয়ে ভিকি কৌশল বলেন, ‘ট্রেলার দেখে অনেকে বলেছেন, সিনেমাটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আসা উচিত। তাই প্রযোজকের এটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আনার যৌক্তিক কারণ ছিলো। সবার কাছেই সেটা পুরোপুরি সঠিক মনে হতো। কিন্তু সিনেমা হলে এ ধরনের সিনেমা মুক্তি দেওয়ার ঝুঁকি নিয়েছেন তিনি। স্যার, সেজন্য আপনাকে অন্তর থেকে ধন্যবাদ জানাই।’

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ সিনেমায় সারা আলি খান ও ভিকি কৌশল (ছবি: ম্যাডক ফিল্মস)

এর আগে ভিকি কৌশল উল্লেখ করেন, ‘সিনেমাটির সাফল্যে দর্শকদের জয় বেশি। এজন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আমাদের ইউনিটের সবার মধ্যে লক্ষ্মণ স্যার সবচেয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন। তিনি বলতেন, আমার দুশ্চিন্তা নেই। আমি জানি, এই গল্প দর্শকদের কাছে পৌঁছাবেই। সিনেমা কেমন চলবে জানি না, তবে তাদের মধ্যে সংযোগ ঠিকই ঘটাবে। কেউই বলবে না গল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারেনি।’

বেশ বোঝা যাচ্ছে, ভিকি কৌশল নিজের নতুন সিনেমার সাফল্যে মুগ্ধ। সারাকে নিয়ে সিনেমা হলে দর্শকদের সঙ্গে সাক্ষাতের ভিডিও শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘হাউস-ফুল, দিল ফুল, গ্রেটফুল।’

সারা আলি খান (ইনস্টাগ্রাম)

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’তে সোমিয়া চরিত্রে নিজের দক্ষতার প্রমাণ রেখেছেন সারা আলি খান। এর মাধ্যমে তিন বছর পর তার কোনও সিনেমা শুধুই বড় পর্দায় মুক্তি পেলো। ২৭ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীর আগের তিন সিনেমা ছিলো ‘কুলি নম্বর ওয়ান’ (২০২০, অ্যামাজন প্রাইম ভিডিও), ‘আতরাঙ্গি রে’ (২০২১, ডিজনি প্লাস হটস্টার) এবং ‘গ্যাসলাইট’ (২০২৩, ডিজনি প্লাস হটস্টার)।

এ প্রসঙ্গে সারা আলি খান বলেন, ‘সত্যিই নিজেকে বড় পর্দায় দেখার শূন্যতা অনুভব হচ্ছিলো। সিনেমাটি ভালোবাসার জন্য আমি দর্শকদের কাছে কৃতজ্ঞ। মনে হচ্ছে আমার আবার অভিষেক হয়েছে বুঝি! আশা করি, আরো ভালো কাজের জন্য নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো। প্রতিটি সিনেমাই শেখা ও পরিণত হওয়ার সুযোগ। যাত্রা যখন অন্তহীন, তখন এমন ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিজয় উদযাপন করা দরকার।’

নতুন সিনেমার জন্য দর্শকদের প্রশংসায় ভাসছেন সারা আলি খান। তাই তিনি যেন হাওয়ায় উড়ছেন! বক্স অফিসের সাফল্য উপভোগের মধ্যে গত ৪ জুন বিকেলে মুম্বাইয়ে মা অমৃতা সিং এবং ভাই ইব্রাহিম আলি খানকে নিয়ে সিনেমাটি দেখেছেন এই তরুণী। সারার সিনেমা দেখে তারা হেসেছেন, কেঁদেছেন, গর্ব করেছেন।

‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’ সিনেমায় সারা আলি খান ও ভিকি কৌশল (ছবি: ম্যাডক ফিল্মস)

ভিকি কৌশলের সঙ্গে সারা আলি খানের রসায়ন মন কেড়েছে দর্শকদের। এবারই প্রথম জুটি বেঁধেছেন তারা। ভিকির দৃষ্টিতে, ‘সারা নিখাদ ও আন্তরিক প্রকৃতির। বড় পর্দায় এসবের প্রতিফলন ঘটে। আমার দেখা সবচেয়ে নিখাদ একজন মানুষ সারা। সে চমৎকার। মানুষের সঙ্গে বেশ আন্তরিকভাবে সংযোগ ঘটায় সে। বড় পর্দায়ও এর প্রতিফলন ঘটে। আমি জানি, যেকোনো চরিত্রে সারাকে দর্শকদের ভালো লাগবে। কারণ তার চোখে নিজের সত্যিটা দেখা যায়।’

গত ২ জুন মুক্তি পায় ‘জারা হাটকে জারা বাঁচকে’। ইনদোরের একটি ছোট্ট শহরের পটভূমিতে কলেজ পড়ুয়া কপিল ও সোমিয়ার প্রেমের গল্প এটি। তারা একে অপরের ভালোবাসায় মগ্ন।

বলিউড

চুপিসারে বিয়ে করেছেন তাপসী

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

তাপসী পান্নু ও ম্যাথিয়াস বো (ছবি: এক্স)

বলিউড অভিনেত্রী তাপসী পান্নু চুপিসারে শুভ কাজ সেরে ফেলেছেন। দীর্ঘদিনের প্রেমিক ম্যাথিয়াস বো’কে বিয়ে করেছেন ৩৬ বছর বয়সী এই তারকা। ভারতের উদয়পুরে গত ২৩ মার্চ বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। ভারতের একটি সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে। তবে তাপসী এখনো নিজে থেকে কিছু জানাননি।

ডেনমার্কের ব্যাডমিন্টন তারকা ম্যাথিয়াস বো’র ঝুলিতে আছে অলিম্পিকের স্বর্ণপদক। ৪৩ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়ের সঙ্গে প্রায় ১০ বছরের সম্পর্ক তাপসীর। তারা নিজেদের সম্পর্কের ব্যাপারে বরাবরই গোপনীয়তা বজায় রেখেছেন। ব্যক্তিজীবন বরাবরই আড়ালে রেখেছেন দু’জনে। কেবল কয়েক মাস আগে প্রেমের কথা জানান তাপসী। এরপর থেকে তাদের বিয়ে নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো।

গত ২০ মার্চ শুরু হয় প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠান। বিয়েতে অংশ নেন দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও স্বজনেরা। নিমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন তাপসীর ‘দোবারা’ ও ‘থাপ্পড়’ সিনেমার সহশিল্পী পাভেল গুলাটি, ‘দোবারা’ ও ‘মনমর্জিয়া’ সিনেমার পরিচালক ও ‘সান্ড কি আঁখ’ সিনেমার প্রযোজক অনুরাগ কাশ্যাপ, চিত্রনাট্যকার কনিকা ধিলন।

বলিউড অভিনেত্রীদের মধ্যে সম্প্রতি বিয়ে করেছেন রাকুল প্রীত সিং ও কৃতি খারবান্দা। সেই তালিকায় তাপসী পান্নুর নাম যুক্ত হলো।

তাপসী পান্নুকে সর্বশেষ রাজকুমার হিরানি পরিচালিত ‘ডানকি’ সিনেমায় শাহরুখ খানের সঙ্গে দেখা গেছে। তার হাতে এখন আছে ‘ফির আয়ি হাসিন দিলরুবা’, ‘ও লাড়কি হ্যায় কাহা?’ এবং ‘খেল খেল মে’।

পড়া চালিয়ে যান

বলিউড

পুলকিত-কৃতির বিয়ের ছবি, কী লিখলেন নবদম্পতি

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

পুলকিত সম্রাট ও কৃতি খারবান্দা (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

সাত পাকে বাঁধা পড়েছেন বলিউডের দুই তারকা পুলকিত সম্রাট ও কৃতি খারবান্দা। গতকাল (১৫ মার্চ) বিয়ে করলেও একদিন পর সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন দু’জনে। এরমধ্যে একটিতে দেখা গেছে, কনের গলায় মঙ্গলসূত্র পরিয়ে দিচ্ছেন বর।

গতকাল (১৬ মার্চ) ইনস্টাগ্রামে পুলকিত ও কৃতি একই অনুভূতি জানিয়েছেন। তারা লিখেছেন, ‘রোদ ঝলমলে নীল আকাশ থেকে ভোরের শিশির, জীবনের ভালো-মন্দ যেকোনো সময়ে শুধুই তুমি। জীবনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমার প্রতিটি হৃদস্পন্দনে শুধুই তুমি।’

পুলকিত সম্রাট ও কৃতি খারবান্দা (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

গোলাপি লেহাঙ্গার সঙ্গে মানানসই কুন্দনের গয়না পরেছেন কৃতি খারবান্দা। পুলকিতের পরনে পেস্তা রঙের শেরওয়ানি আর মাথায় পাগড়ি। শেরওয়ানিতে ‘গায়ত্রী মন্ত্র’ ছাপা। কনের লেহাঙ্গার সঙ্গে মিলিয়ে পাগড়িতে আছে গোলাপি সুতার কাজ। সংগীতানুষ্ঠান, গায়ে হলুদ, ককটেল পার্টি ও বিয়েসহ চার দিনব্যাপী জমকালো আয়োজন ছিলো দিল্লি এনসিআরের কাছে আইটিসি গ্র্যান্ড ভারত হোটেলে।

‘বীরে কি ওয়েডিং’ (২০১৮) সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করতে গিয়ে সম্পর্কে জড়ান পুলকিত ও কৃতি খারবান্দা। এরপর ‘পাগলপান্তি’ (২০১৯) ও ‘তেইশ’ (২০২০) সিনেমায় তাদের একত্রে দেখা গেছে। বিয়ের মধ্য দিয়ে সফল পরিণতি পেলো তাদের প্রেম। দু’জনেরই জন্ম দিল্লিতে। তাই বিয়ের যাবতীয় অনুষ্ঠান এই শহরেই করা হয়েছে।

পুলকিত সম্রাট ও কৃতি খারবান্দা (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

বলিউড থেকে বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন হাতেগোনা অতিথি। পুলকিত অভিনীত ‘ফুকরে’ সিনেমার অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে রিচা চড্ডা ও আলি ফজল দম্পতিকে দেখা গেছে। এছাড়া ফারহান আখতার ও শিবানি দান্ডেকর, সংগীতশিল্পী মিকা সিং নিমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন।

৪০ বছর বয়সী পুলকিত সম্রাটের এটি দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগে বলিউড সুপারস্টার সালমন খানের ‘রাখি বোন’ শ্বেতা রোহিরাকে ভালোবেসে বিয়ে করেন তিনি। সালমানের হাত ধরে ২০১২ সালে বড় পর্দায় সুযোগ পান পুলকিত। তার প্রথম সিনেমা ‘বিট্টু বস’। শ্বেতার সঙ্গে মাত্র একবছরের দাম্পত্য জীবন কেটেছে তার। এরপর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় তাদের।

পুলকিত সম্রাট ও কৃতি খারবান্দা (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

পুলকিত সম্রাটের সিনেমার তালিকায় উল্লেখযোগ্য– ‘ফুকরে’ (২০১৩), ‘জয় হো’ (২০১৪), ‘ও তেরি’ (২০১৪), ‘ডলি কি ডোলি’ (২০১৫), ‘বাঙ্গিস্তান’ (২০১৫), ‘সনম রে’ (২০১৬), ‘জুনুনিয়াত’ (২০১৬), ‘ফুকরে রিটার্নস’ (২০১৭), ‘ফুকরে থ্রি’ (২০২৩)। তার অভিনয় দর্শকদের মন জয় করেছে।

অন্যদিকে ২০০৯ সালে তেলুগু সিনেমা ‘বনি’র মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন কৃতি খারবান্দা। ২০১৬ সালে ‘রাজ়: রিবুট’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয় তার। ৩৩ বছর বয়সী এই তারকার ক্যারিয়ারে আরো আছে ‘শাদি মে জ়রুর আনা’ (২০১৭), ‘কারবান’ (২০১৮), ‘ইয়ামলা পাগলা দিওয়ানা: ফির সে’ (২০১৮), ‘হাউসফুল ফোর’ (২০১৯), ‘চৌদ্দ ফেরে’ (২০২১)।

পড়া চালিয়ে যান

বলিউড

মধুবালার বায়োপিক আসছে, নায়িকা হচ্ছেন কে?

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

মধুবালা (ছবি: এক্স)

বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেত্রী মধুবালার বায়োপিক তৈরি হচ্ছে। এর নাম রাখা হয়েছে ‘মধুবালা’। আজ (১৫ মার্চ) সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘোষণা দিয়েছে সনি পিকচার্স ইন্টারন্যাশনাল প্রোডাকশন্স। এটি পরিচালনা করবেন জাসমিত কে রিন। আলিয়া ভাট অভিনীত ‘ডার্লিংস’ (২০২২) পরিচালনা করে দর্শক ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়ান তিনি।

মধুবালার বায়োপিকে নাম ভূমিকায় কে অভিনয় করবেন তার নাম জানতে নেটিজেনদের মধ্যে কৌতূহল দেখা দিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, আলিয়া ভাটকে নেওয়া হতে পারে এই চরিত্রে। যদিও নির্মাতারা আনুষ্ঠানিকভাবে কারও নাম ঘোষণা করেননি।

মেয়ের মা হওয়ার জনসমক্ষে খুব কম এসেছেন আলিয়া ভাট।

মধুবালাকে বলা হয় ভারতীয় সিনেমার শুকতারা। বড় পর্দায় কাজ করতে গিয়ে যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি, সেগুলো তুলে ধরা হবে বায়োপিকে।

সনি পিকচার্স ইন্টারন্যাশনাল প্রোডাকশন্সের সঙ্গে ‘মধুবালা’ প্রযোজনা করবে ব্রুইং থটস প্রাইভেট লিমিটেডের প্রশান্ত সিং ও মাধুর্য বিনয়। মধুবালার বোন মধুর ব্রিজ ভূষণ এবং অরবিন্দ কুমার মালবিয়া সহ-প্রযোজক হিসেবে থাকবেন।

মধুবালা (ছবি: এক্স)

১৯৪২ সালে ‘বসন্ত’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন মধুবালা। ১৯৬০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘মোগল-এ-আজ়ম’ সিনেমায় আনারকলি চরিত্রে তার অভিনয়কে ক্যারিয়ারের সেরা কাজ মনে করা হয়।

ব্যক্তিজীবনে কিংবদন্তি গায়ক-অভিনেতা কিশোর কুমারের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে জড়িয়েছিলেন মধুবালা। মাত্র ৩৬ বছর বয়সে তার জীবনাবসান হয়।

পড়া চালিয়ে যান

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ