Connect with us

ঢালিউড

এক ঝলকে ‘ওমর’, গানের সঙ্গে থ্রিলার ও টানটান উত্তেজনায় রহস্য

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

‘ওমর’ সিনেমায় নাসিরউদ্দিন খান ও শরিফুল রাজ (ছবি: মাস্টার কমিউনিকেশন্স)

পাখির চোখে সমুদ্রের ঢেউ। তার ওপর লেখা, ‘হারানো সময় কখনো ফিরে পাওয়া যায় না।’ ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে, সময় এবং স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না। দৃশ্যটি যেন এরই রূপক। তারপর দেখা যায়, নানান রঙের বেলুন হাতে সৈকতে এক তরুণী ও চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ। হাসি-আনন্দে মেতেছেন তারা। নেপথ্যে বাজছে আরফিন রুমির গাওয়া নতুন গান, ‘আমার দুই নয়নের মণি তুই/দামি হীরার খনি তুই/তোরে আমি করি যে তুই তুই/আমার স্বপ্নকে ছুঁই/তোর সুখে হাসি, তোর দুখে ভাসি/তোরে এতো ভালোবাসি।’

মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘ওমর’ সিনেমার ১ মিনিট ৩৩ সেকেন্ডের এক ঝলকের শুরুটা হয় এভাবে। সমুদ্রের দৃশ্য শেষ হওয়ার পর থ্রিলার ও টানটান উত্তেজনায় ভরা বিভিন্ন মুহূর্তে একের পর এক রহস্য ছড়িয়েছে। সমুদ্রে পা ডুবিয়ে শরিফুল রাজের হেঁটে যাওয়ার দৃশ্য দিয়ে শেষ হয় এক ঝলক।

আজ (২৫ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টায় প্রকাশিত এক ঝলক দেখে ‘ওমর’-এর গল্প জানতে কৌতূহল জেগেছে দর্শকদের। আসন্ন ঈদুল ফিতরে বড় পর্দায় জানা যাবে সব।

‘ওমর’ সিনেমায় নাসিরউদ্দিন খান (ছবি: মাস্টার কমিউনিকেশন্স)

এক ঝলকে শরিফুল রাজের পাশাপাশি নাসিরউদ্দিন খান, শহীদুজ্জামান সেলিম, ফজলুর রহমান বাবু, এরফান মৃধা শিবলু ও আবু হুরায়রা তানভীরকে দেখা গেছে। সমুদ্রের দৃশ্যগুলোতে শরিফুল রাজের সহশিল্পী ছিলেন তানজিলা হক মাইশা। সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেছেন রোজি সিদ্দিকী। বিশেষ ভূমিকায় থাকছেন ভারতীয় নায়িকা দর্শনা বণিক। সিনেমাটির নাম দিয়েছেন অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী। তবে অভিনয় করেননি তিনি।

‘ওমর’ সিনেমায় দর্শনা বণিক (ছবি: মাস্টার কমিউনিকেশন্স)

‘ওমর’ সিনেমার চিত্রনাট্য লিখেছেন সিদ্দিক আহমেদ। চিত্রগ্রহণ করেছেন রাজু রাজ। শিল্প নির্দেশনায় সামুরাই মারুফ। মাস্টার কমিউনিকেশন্সের ব্যানারে এটি প্রযোজনা করেছেন খোরশেদ আলম।

‘ওমর’ সিনেমায় শরিফুল রাজ (ছবি: মাস্টার কমিউনিকেশন্স)

সিনেমাটির অন্যান্য গান গেয়েছেন দিলশাদ নাহার কনা, ‘নাসেক নাসেক’ তারকা অনিমেষ রায় ও ভারতের ঈশান মিত্র। গানের কথা লিখেছেন জনি হক, সোমেশ্বর অলি ও রাসেল মাহমুদ। সুর ও সংগীত পরিচালনায় নাভেদ পারভেজ এবং ভারতের স্যাভি।

মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ (ছবি: সিনেমাওয়ালা নিউজ)

‘ওমর’ হলো মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ষষ্ঠ সিনেমা। তার প্রথম সিনেমা ‘প্রজাপতি’ মুক্তি পায় ২০১১ সালে। এরপর তিনি একে একে পরিচালনা করেছেন ‘ছায়া-ছবি’ (২০১২), ‘তারকাঁটা’ (২০১৪), ‘সম্রাট’ (২০১৬) এবং ‘যদি একদিন’ (২০১৯)।

ঢালিউড

কোটা সংস্কার আন্দোলন ইস্যুতে আফরান নিশোর কবিতা

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

আফরান নিশো (ছবি: ফেসবুক)

কোটা সংস্কার আন্দোলন ইস্যুতে নিজের প্রতিক্রিয়া কবিতার মাধ্যমে জানালেন অভিনেতা আফরান নিশো। এতে উঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধ, জাতীয় পতাকা, শান্তি ও সমাধানের আহ্বান। রক্তাক্ত রাজপথ দেখে মর্মাহত তিনি। আজ (১৭ জুলাই) নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এটি পোস্ট করেছেন তিনি।

আফরান নিশোর লেখা কবিতা
আমার সোনার বাংলা
আমাদের প্রাণ…
লাল সবুজের পতাকা
সবুজের মাঝে লাল…
বাবা মুক্তিযোদ্ধা
চেতনা–
লড়বো যদি যাক প্রাণ…
লাল সবুজের পতাকা…
তাদেরই প্রতিদান
তাদের আত্মত্যাগের ঘ্রাণ..
তবে আজ…
কেন এতো… লাল?
সবুজে লাল খুজি…
লালে নয় সবুজ
পতাকা হচ্ছে রক্তাক্ত…
পুরো জাতি কি আজ অবুঝ?
বলেন না?
মা বলেন…আর চাইনা লাল…
ফিরিয়ে দাও… আমার সবুজ।
লাল সবুজের পতকায় আজ কেনো এতো লাল?
শান্তি চাই
হোক সংস্কার
অপমান চাই না
রক্তাক্ত রাজপথ চাই না
হোক সমাধান
লাল সবুজের পতাকায় আর তো লাল চাই না।।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

কারো মা-বাবার বুক এভাবে খালি হতে পারে না: শাকিব

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

শাকিব খান (ছবি: ফেসবুক)

কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সহিংসতা ও শিক্ষার্থীদের প্রাণহানির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। চলমান সংকটের যৌক্তিক সমাধান বের করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। আজ (১৭ জুলাই) সোশ্যাল মিডিয়ায় এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন ‘তুফান’ তারকা।

শাকিব লিখেছেন, ‘আমার প্রাণের বাংলাদেশ এভাবে রক্তাক্ত হতে পারে না। কারো মা-বাবার বুক এভাবে খালি হতে পারে না। আপনারা যারা অভিভাবক পর্যায়ে আছেন তাদের কাছে অনুরোধ রইলো, এখনি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে এই সংকটের যৌক্তিক সমাধান বের করুন। সব ধরনের সংঘাতের সমাপ্তি চাই।’

ফেসবুকে শাকিবের স্ট্যাটাসে প্রায় দেড় লাখ লাইক পড়েছে। এটি শেয়ার হয়েছে ৪ হাজার ৬০০ বার।

এদিকে ‘তুফান’ সাফল্যের পর শাকিব খানের নতুন সিনেমা ‘দরদ’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী সেপ্টেম্বরে। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেত্রী সোনাল চৌহান।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

‘দরদ’ মুক্তির সময় ঘনিয়ে এসেছে! ১৫ জুলাই প্রচারণা শুরু

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

‘দরদ’ সিনেমায় শাকিব খান ও সোনাল চৌহান (ছবি: অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট)

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের প্রথম প্যান ইন্ডিয়ান সিনেমা ‘দরদ’ মুক্তির সময় ঘনিয়ে এসেছে! আগামী সেপ্টেম্বরে এটি বড় পর্দায় আসবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি জানিয়েছেন এই সিনেমার পরিচালক অনন্য মামুন। তিনি যোগ করেছেন, ১৫ জুলাই থেকে প্রচারণা শুরু হবে। বাংলা, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মালায়লাম ও কান্নাডা ভাষায় মুক্তি পাবে এটি। বাংলায় নাম ‘দরদ’, হিন্দিতে ‘দর্দ’।

কলকাতায় আইটিসি রয়েল বেঙ্গল হোটেলে শাকিব খান ও প্রযোজক সরদার সানিয়াত হোসেনের সঙ্গে তোলা একটি ছবি গতকাল (৮ জুলাই) সকালে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন অনন্য মামুন। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “দেশের সঙ্গে বিশ্ববাজারে ভালো কিছু করাই আমাদের লক্ষ্য। আগামী দুই মাস ‘দরদ’-এর প্রোমোশনে থাকবে নতুন কিছু। শাকিবিয়ানদের নিয়ে প্রথম কোনও বড় আয়োজন হবে।”

চলতি বছরের ভালোবাসা দিবসে ‘দরদ’-এর ফার্স্টলুক পোস্টার প্রকাশ্যে আসে। এতে রক্তে ভেজা হাত ও এলোমেলো চুলে দেখা গেছে শাকিবকে। গত ঈদুল আজহায় প্রকাশিত হয় সাইকো-থ্রিলার ঘরানার সিনেমাটির দেড় মিনিটের টিজার। এতে ছাপোষা তরুণ, প্রেমিক ও ভয়ংকরসহ বিভিন্ন ভঙ্গিতে হাজির হন তিনি! ভরপুর অ্যাকশন ও সাসপেন্স থাকার আভাস রয়েছে টিজারে।

‘দরদ’ সিনেমায় শাকিব খান (ছবি: অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট)

‘দরদ’ সিনেমায় শাকিবের চরিত্রের নাম দুলু মিয়া। সে পেশায় অটোচালক। তার বিপরীতে শেফালি চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেত্রী সোনাল চৌহান। এবারই প্রথম তাদের রসায়ন দেখা যাবে বড় পর্দায়। টিজারে দুই দেশের দুই তারকার প্রেমের ঝলক নজর কেড়েছে।

সোনাল চৌহান বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা। ২০০৮ সালে ইমরান হাশমির বিপরীতে ‘জান্নাত’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তার। ২০১১ সালে অমিতাভ বচ্চনের ‘বুড্ডা হেগা তেরা বাপ’-এ দেখা গেছে তাকে। সর্বশেষ ‘বাহুবলী’ তারকা প্রভাস অভিনীত ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় মান্দোদারি চরিত্রে অভিনয় করেন ৩৬ বছর বয়সী এই তারকা।

সোনাল চৌহান বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা। ২০০৮ সালে ইমরান হাশমির বিপরীতে ‘জান্নাত’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তার। ২০১১ সালে অমিতাভ বচ্চনের ‘বুড্ডা হেগা তেরা বাপ’-এ দেখা গেছে তাকে। সর্বশেষ ‘বাহুবলী’ তারকা প্রভাস অভিনীত ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় মান্দোদারি চরিত্রে অভিনয় করেন ৩৭ বছর বয়সী এই তারকা।

‘দরদ’ সিনেমায় সোনাল চৌহান ও শাকিব খান (ছবি: অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট)

গল্পে দেখা যাবে, বেনারস শহরে কয়েকটি হাইপ্রোফাইল খুনের ঘটনা ঘটে। তখন সবার আঙুল ওঠে দুলু মিয়ার ওপর। পরে আরেকটি রহস্য বেরিয়ে আসতে শুরু করে, যেখানে দুলু মিয়ার জীবনের প্রেমের গল্প জানা যায়।

সিনেমাটির মাধ্যমে রুপালি পর্দায় অভিষেক হবে মডেল সাফা মারুয়ার। তিনি থাকছেন তৃণা চরিত্রে। শাকিব খানের সঙ্গে একফ্রেমে পর্দায় হাজির হবেন এই তরুণী।

‘দরদ’ সিনেমায় শাকিব খান ও সোনাল চৌহান (ছবি: অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট)

এছাড়া অভিনয় করেছেন কলকাতার তারকা পায়েল সরকার (চরিত্রের নাম অগ্নি), বলিউড ও দক্ষিণী সিনেমার অভিনেতা রাহুল দেব (সরফরাজ), রাজেশ শর্মা (ইয়াকাত), অলোক জৈন (আশরাফ), বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী (মিজানুর রহমান)।

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হয়েছে ‘দরদ’। এর প্রযোজক হিসেবে ভারতের এসকে মুভিজের সঙ্গে আছে বাংলাদেশের কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়ার কিবরিয়া ফিল্মস ও অনন্য মামুনের অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট।

শাকিব খান ও সোনাল চৌহান (ছবি: অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট)

এদিকে শাকিবের ‘তুফান’ নিয়ে দেশ-বিদেশে ডামাডোল অব্যাহত রয়েছে। ঈদুল আজহার দিন (১৭ জুন) মুক্তির পর থেকে দারুণ ব্যবসা করছে রায়হান রাফী পরিচালিত এই সিনেমা। গত ২৮ জুন এসভিএফের পরিবেশনায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শতাধিক সিনেমাহলে মুক্তি পেয়েছে এটি। এরমধ্যে রয়েছে আমেরিকা, কানাডা, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, সুইডেন, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, পর্তুগাল, আবুধাবি, ওমান, কাতার ও বাহরাইন। এরপর ৫ জুলাই ভারতে মুক্তি পায় এই সিনেমা।

‘তুফান’ সিনেমায় শাকিব খান (ছবি: আলফা-আই স্টুডিওস)

‘তুফান’-এ শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ওপার বাংলার মিমি চক্রবর্তী ও বাংলাদেশের মাসুমা রহমান নাবিলা। সিআইডি আকরাম চরিত্রে দর্শক মাতিয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী। এছাড়া বিভিন্ন চরিত্রে পর্দায় এসেছেন ফজলুর রহমান বাবু, শহীদুজ্জামান সেলিম, গাজী রাকায়েত, সালাহউদ্দিন লাভলু, সুমন আনোয়ার প্রমুখ।

সিনেমাটির সব গান সাড়া ফেলেছে। আকাশ সেনের কথা, সুর ও সংগীতে ‘দুষ্টু কোকিল’ গেয়েছেন দিলশাদ নাহার কনা। টাইটেল গানে কণ্ঠ দিয়েছেন আরিফ রহমান জয়। এতে র‍্যাপ করেছেন রাপাস্তা দাদু। এর কথা লিখেছেন তাহসান শুভ, সুর ও সংগীত পরিচালনায় নাভেদ পারভেজ। আইটেম গান ‘লাগে উরাধুরা’ গেয়েছেন প্রীতম হাসান ও দেবশ্রী অন্তরা। এটি লিখেছেন শরিফ উদ্দিন ও রাসেল মাহমুদ। সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন রাজ্জাক দেওয়ান ও প্রীতম হাসান। ‘তুফান’ প্রযোজনা করেছেন প্রযোজক আলফা-আই স্টুডিওজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল। এর ডিজিটাল পার্টনার চরকি।

পড়া চালিয়ে যান
Advertisement

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ