Connect with us

ঢালিউড

ঢালিউড ২০২৩: ৫২ সিনেমার মধ্যে ব্লকবাস্টার ১টি, সুপারহিট ১টি

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

শাকিব খানের ‘প্রিয়তমা’ ও আফরান নিশোর ‘সুড়ঙ্গ’ (ছবি: ভার্সেটাইল মিডিয়া ও চরকি)

ঢালিউডের ২০২৩ সাল কেটেছে ভালো-মন্দে। ব্লকবাস্টার ও সুপারহিট সিনেমার সংখ্যার দিকে তাকালে মন্দার পাল্লাই ভারী মনে হবে। তবে কয়েকটি সিনেমার প্রতি দর্শকদের তুমুল আগ্রহ আশা জাগিয়েছে। চলতি বছর ঢালিউডের মোট ৫৩টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে বড় পর্দায়। এরমধ্যে হাতেগোনা কয়েকটি সিনেমা ভালো সাড়া পেয়েছে। বাদবাকি বেশিরভাগই ফ্লপ।

‘ও প্রিয়তমা’ গানের দৃশ্যে শাকিব খান (ছবি: ভার্সেটাইল মিডিয়া)

শাকিব খান
ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের ‘প্রিয়তমা’ ২০২৩ সালের একমাত্র ব্লকবাস্টার। এর একটি পোস্টারে বৃদ্ধ সাজে হাজির হয়ে সিনেমা মুক্তির আগেই ঝড় তোলেন তিনি। হিমেল আশরাফের পরিচালনায় এতে শাকিবের বিপরীতে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছে কলকাতার নায়িকা ইধিকা পালের। দি অভি কথাচিত্রের পরিবেশনায় ঈদুল আজহায় (২৯ জুন) মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। স্টার সিনেপ্লেক্সের জুলাই মাসে সবচেয়ে বেশি টিকিট বিক্রি হওয়ার সিনেমার তালিকায় দুই নম্বরে ছিলো ‘প্রিয়তমা’। সিনেমাটির অভাবনীয় সাফল্যে হিমেল আশরাফকে ২৬ লাখ টাকা মূল্যের নতুন একটি গাড়ি উপহার দিয়েছেন প্রযোজক আরশাদ আদনান। তার প্রতিষ্ঠান ভার্সেটাইল মিডিয়া প্রযোজনা করেছে ‘প্রিয়তমা’। এর চিত্রনাট্য লিখেছেন সমুদ্রে ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ ফারুক হোসেন। শুধু দেশেই নয়; যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যে চলেছে সিনেমাটি।

ঈদুল ফিতরে ১০০টি সিনেমাহলে মুক্তি পায় শাকিব খানের ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’। তপু খানের পরিচালনায় এতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন শবনম বুবলী। এটাই এই জুটির শেষ সিনেমা হতে পারে। কারণ শুটিং শেষের আগে শাকিবের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আনেন বুবলী। পরে দূরত্ব বজায় রেখেই গানের কাজ শেষ করে তারা। দর্শকদের কাছ থেকে মোটামুটি ভালো সাড়া পেলেও সিনেমাটি ব্যবসায়িকভাবে সফল কিনা সেই প্রশ্ন রয়েছে। কারণ পরিচালক সুপারহিট বললেও প্রযোজক আরটিভির প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আশিক রহমানের দাবি, লগ্নিকৃত টাকার এক-তৃতীয়াংশও উঠে আসেনি।

‘সুড়ঙ্গ’র দৃশ্যে আফরান নিশো (ছবি: চরকি)

আফরান নিশো
ঈদুল আজহায় শাকিবের ‘প্রিয়তমা’র সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সুপারহিট হয়েছে ‘সুড়ঙ্গ’। এর মাধ্যমে বড় পর্দায় দারুণভাবে যাত্রা শুরু করেছেন ছোট পর্দার তারকা আফরান নিশো। তাকে রুপালি পর্দায় দেখতে সিনেমাহলে ভিড় জমেছে দর্শকদের। রায়হান রাফীর পরিচালনায় এতে নিশোর বিপরীতে অভিনয় করেছেন তমা মির্জা। স্টার সিনেপ্লেক্সের জুলাই মাসে সবচেয়ে বেশি টিকিট বিক্রি হওয়ার সিনেমার তালিকায় শীর্ষে ছিলো ‘সুড়ঙ্গ’। দেশের বাইরে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, পশ্চিমবঙ্গ ও যুক্তরাজ্যে চলেছে সিনেমাটি। ‘সুড়ঙ্গ’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে আলফা-আই স্টুডিওস ও চরকি।

‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ সিনেমায় আরিফিন শুভ (ছবি: জাজ মাল্টিমিডিয়া)

আরিফিন শুভ
২০২৩ সালে আরিফিন শুভর সিনেমা ক্যারিয়ারের ১৩ বছর পূর্ণ হয়েছে। চলতি বছর তার দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে বড় পর্দায়। কাকতালীয়ভাবে দুটিরই মুক্তির তারিখ ১৩! এরমধ্যে ১৩ জানুয়ারি সিনেমাহলে এসেছে ‘মিশন এক্সট্রিম’ (২০২১) সিনেমার দ্বিতীয় কিস্তি ‘ব্ল্যাক ওয়ার’। কপ ক্রিয়েশনের প্রযোজনা এবং সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদের পরিচালনায় এতে শুভর সঙ্গে জুটি বাঁধেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বায়োপিক ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ মুক্তি পেয়েছে ১৩ অক্টোবর। শ্যাম বেনেগালের পরিচালনায় এতে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য ব্যাপক আলোচিত ও প্রশংসিত হয়েছেন আরিফিন শুভ। বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় এই সিনেমায় শুভর বিপরীতে দেখা গেছে নুসরাত ইমরোজ তিশা ও প্রার্থনা ফারদিন দীঘিকে।

বড় পর্দায় চলতি বছর শুভর সিনেমা দুটি ব্যবসাসফল হয়নি। এছাড়া চরকিতে মুক্তি পেয়েছে তার ওয়েব ফিল্ম ‘ঊনিশ২০’। কাকতালীয় হলো, এর মুক্তি তারিখও ১৩! ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে ১৩ ফেব্রুয়ারি চরকিতে এসেছে এই সিনেমা। মিজানুর রহমান আরিয়ানের পরিচালনায় এতে শুভর বিপরীতে অভিনয় করেছেন আফসান আরা বিন্দু।

‘প্রহেলিকা’র দৃশ্যে মাহফুজ আহমেদ (ছবি: রঙ্গন মিউজিক)

মাহফুজ আহমেদ
দীর্ঘ আট বছর পর বড় পর্দায় ফিরেছেন মাহফুজ আহমেদ। ‘প্রহেলিকা’র মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি। ঈদুল আজহায় শাকিবের ‘প্রিয়তমা’ ও আফরান নিশোর ‘সুড়ঙ্গ’র জয়জয়কারের মধ্যেও দর্শক টেনেছে সিনেমাটি। জামাল হোসেনের প্রযোজনা ও চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ‘প্রহেলিকা’য় মাহফুজ আহমেদের বিপরীতে অভিনয় করেছেন শবনম বুবলী।

‘অন্তর্জাল’ সিনেমায় সিয়াম আহমেদ (ছবি: মোশন পিপল স্টুডিওস)

অন্য চিত্রনায়কেরা
চলতি বছর সিয়াম আহমেদ ২টি (অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন, অন্তর্জাল), ফেরদৌস আহমেদ ৩টি (১৯৭১ সেই সব দিন, মাইক, সুজন মাঝি), নিরব হোসেন ২টি (ক্যাসিনো, ফিরে দেখা), সজল নূর ২টি (জ্বীন, ১৯৭১ সেই সব দিন), জিয়াউল রোশান ২টি (জ্বীন, পাপ: প্রথম চাল), এবিএম সুমন ২টি (এমআর-নাইন: ডু অর ডাই, অন্তর্জাল), আদর আজাদ ২টি (লোকাল, যন্ত্রণা) এবং বাপ্পী চৌধুরী ১টি (শত্রু) সিনেমায় দর্শকদের সামনে এসেছেন। তবে বেশিরভাগ চিত্রনায়ক আহামরি সাফল্য পাননি।

‘প্রহেলিকা’র দৃশ্যে শবনম বুবলী (ছবি: নকশীকাঁথা)

সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত তিন নায়িকা
ঢালিউডে ২০২৩ সালে সিনেমার সংখ্যার দিক দিয়ে এগিয়ে ছিলেন শবনম বুবলী। তার চারটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে চলতি বছর। এগুলো হলো সাইফ চন্দনের ‘লোকাল’ (আদর আজাদ), তপু খানের ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ (শাকিব খান), চয়নিকা চৌধুরীর ‘প্রহেলিকা’ (মাহফুজ আহমেদ) এবং সৈকত নাসিরের ‘ক্যাসিনো’ (নিরব হোসেন)। এরমধ্যে ‘প্রহেলিকা’র জন্য কিছুটা প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

‘লাল শাড়ি’ সিনেমায় অপু বিশ্বাস (ছবি: অপু-জয় চলচ্চিত্র)

সিনেমার চেয়ে ব্যক্তিজীবনের কারণে বেশি আলোচনায় ছিলেন শবনম বুবলী। আরেক চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় পাল্টপাল্টি বাকবিতণ্ডায় লিপ্ত হন তিনি। বাস্তবে শাকিব খানকে কেন্দ্র করে অপুর চেয়ে পিছিয়ে ছিলেন বুবলী। তবে বড় পর্দায় তার চেয়ে পিছিয়ে ছিলেন অপু। তার অভিনীত বন্ধন বিশ্বাসের ‘লাল শাড়ি’ (সাইমন সাদিক) ও সোলায়মান আলী লেবুর ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ (জয় চৌধুরী)।

‘মা’ সিনেমার দৃশ্যে পরীমণি (ছবি: অরণ্যে পুলক)

বড় পর্দার চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশি আলোচিতদের তালিকায় আরো ছিলেন পরীমণি। চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের সঙ্গে মনোমালিন্য, ফিরে আসা ও বিয়েবিচ্ছেদের কারণে খবরের শিরোনামে এসেছেন তিনি। তার অভিনীত দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে চলতি বছর। এগুলো হলো আবু রায়হান জুয়েলের ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ এবং অরণ্য আনোয়ারের ‘মা’। কিন্তু কোনোটিই ব্যবসাসফল হয়নি। এরমধ্যে ‘মা’ ৭৬তম কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের বাণিজ্যিক শাখায় প্রদর্শিত হওয়ায় আলোচিত হয়েছে।

‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ সিনেমায় নুসরাত ইমরোজ তিশা (ছবি: জাজ মাল্টিমিডিয়া)

নুসরাত ইমরোজ তিশা
২০২৩ সালে ঐতিহাসিক দুটি চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। বছরের শুরুতে প্রদীপ ঘোষের ‘বীরকন্যা প্রীতিলতা’য় প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার চরিত্রে বড় পর্দায় এসেছেন তিনি। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বায়োপিক ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’-এ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছার ভূমিকায় দেখা গেছে তাকে। এছাড়া চরকিতে মুক্তি পেয়েছে তার ওয়েব ফিল্ম ‘সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি’। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পরিচালনায় তার সঙ্গেই এতে অভিনয় করেছেন তিশা। তাদের এই সিনেমা বুসান ও মুম্বাই ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে দেখানো হয়েছে।

(বাঁ থেকে) সানজানা সঙ্গী, পঙ্কজ ত্রিপাঠি, পার্বতী থিরুভোথু ও জয়া আহসান (ছবি: উইজ ফিল্মস)

জয়া আহসান
২০২৩ সাল দারুণ কেটেছে জয়া আহসানের। ‘কড়ক সিং’-এর মাধ্যমে বলিউডের হিন্দি সিনেমা এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মে একইসঙ্গে অভিষেক হয়েছে তার। এতে বলিউড অভিনেতা পঙ্কজ ত্রিপাঠির সঙ্গে তার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। এর ফলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের দৃষ্টিতে ২০২৩ সালের সেরা অভিনয়শিল্পীদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। ৫৪তম গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে (আইএফএফআই) অনিরুদ্ধ রায় চৌধুরী পরিচালিত ‘কড়ক সিং’ সিনেমার ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে। একই উৎসবে জয়ার আরো তিন সিনেমা দেখানো হয়েছে। এগুলো হলো কৌশিক গাঙ্গুলীর ‘অর্ধাঙ্গিনী’, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে সুমন মুখোপাধ্যায়ের ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ এবং বাংলাদেশ-ইরানের যৌথ প্রযোজনায় মোর্তজা অতাশ জমজমের ‘ফেরেশতে’। পশ্চিমবঙ্গে ‘অর্ধাঙ্গিনী’র পাশাপাশি জয়া অভিনীত ও সৃজিত মুখার্জি পরিচালিত ‘দশম অবতার’ ব্যবসাসফল হয়েছে। ২০২৩ সালে টালিউডে ১০ বছর পূর্ণ করেছেন জয়া। এছাড়া ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমার সুবাদে বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন তিনি।

‘খুফিয়া’র দৃশ্যে আজমেরী হক বাঁধন ও টাবু (ছবি: নেটফ্লিক্স)

ভারতীয় সিনেমায় আরো চার নায়িকা
জয়া আহসানের আগে বিশাল ভরদ্বাজের পরিচালনায় নেটফ্লিক্সের ‘খুফিয়া’র মাধ্যমে হিন্দি সিনেমায় অভিষেক হয়েছে আজমেরী হক বাঁধনের। এতে বলিউড অভিনেত্রী টাবুর সঙ্গে তার অভিনয়ে মুগ্ধ দর্শকেরা।

তাসনিয়া ফারিণ

‘আরো এক পৃথিবী’র দৃশ্যে তাসনিয়া ফারিণ ও কৌশিক গাঙ্গুলি (ছবি: এসকে মুভিজ)

বছরের শুরুতে পশ্চিমবঙ্গে অতনু ঘোষের পরিচালনায় ‘আরো এক পৃথিবী’র মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তাসনিয়া ফারিণের। এরপর সৌমিক হালদার পরিচালিত ‘আবার বিবাহ অভিযান’ সিনেমায় নুসরাত ফারিয়া এবং সঞ্জয় সমদ্দারের ‘মানুষ’ সিনেমায় অভিনয় করেন বিদ্যা সিনহা মিম।

‘মায়ার জঞ্জাল’ সিনেমায় ঋত্বিক চক্রবর্তী ও অপি করিম (ছবি: ভিউজ অ্যান্ড ভিশনস)

ঢালিউডের অন্য নায়িকারা
যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘মায়ার জঞ্জাল’ সিনেমার মাধ্যমে ১৫ বছর পর বড় পর্দায় ফিরেছেন অপি করিম। অন্য চিত্রনায়িকাদের মধ্যে বিদ্যা সিনহা মিম ২টি (অন্তর্জাল, মানুষ), জাকিয়া বারী মম ২টি (ওরা ৭ জন, রেডিও), নিপুণ ২টি (সুজন মাঝি, ভাগ্য), ববি হক ২টি (পাপ: প্রথম চাল, বৃদ্ধাশ্রম), জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী ২টি (ব্ল্যাক ওয়ার, আদম), নুসরাত ফারিয়া ২টি (সুড়ঙ্গ, মুজিব: একটি জাতির রূপকার), পূজা চেরি ১টি (জ্বীন), মাহিয়া মাহি ১টি (বুবুজান), তমা মির্জা ১টি (সুড়ঙ্গ) এবং জাহারা মিতু ১টি (শত্রু) সিনেমায় দর্শকদের সামনে এসেছেন।

‘বলী’ সিনেমার দৃশ্যে নাসির উদ্দিন খান (ছবি: অ্যাপলবক্স ফিল্মস লিমিটেড)

উৎসবে বাংলাদেশের সিনেমা
২৮তম বুসান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে নিউ কারেন্টস শাখায় পুরস্কৃত হয়েছে ইকবাল হোসাইন চৌধুরীর ‘বলী’ (নাসির উদ্দিন খান, প্রিয়ম অর্চি)। একই উৎসবে জিসোক শাখায় প্রতিযোগিতা করেছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি’ (নুসরাত ইমরোজ তিশা, মোস্তফা সরয়ার ফারুকী) এবং নিউ কারেন্টস শাখায় নির্বাচিত হয় বিপ্লব সরকারের ‘আগন্তুক’ (সাহানা রহমান সুমি, ফেরদৌসী মজুমদার)।

রেইনড্যান্স ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের পুরস্কার হাতে নুহাশ হুমায়ূন, (ডানে) ‘পেট কাটা ষ’র বিভিন্ন দৃশ্য (ছবি: চরকি)

ভারতের গোয়াতে ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অব ইন্ডিয়ার (আইএফএফআই) ৫৪তম আসরে সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড শাখায় দেখানো হয়েছে বাংলাদেশ-ইরান যৌথ প্রযোজনায় মুর্তজা অতাশ জমজম পরিচালিত ‘ফেরেশতে’ (জয়া আহসান, রিকিতা নন্দিনী শিমু), মুম্বাই ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ‘জেন্ডার সেনসিটিভিটি অ্যাওয়ার্ড’ জিতেছে কমলা কালেকটিভ ও গুপী বাঘা প্রোডাকশন লিমিটেড প্রযোজিত এবং লীসা গাজী পরিচালিত ‘বাড়ির নাম শাহানা’, ২৯তম কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সৈয়দা নিগার বানুর ‘নোনা পানি’, ৪৫তম মস্কো ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের মূল প্রতিযোগিতা শাখায় নির্বাচিত হয়েছে নূরুল আলম আতিকের ‘পেয়ারার সুবাস’, ৩১তম রেইনড্যান্স ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের জুরি অ্যাওয়ার্ডসে সেরা আন্তর্জাতিক কাহিনিচিত্র হয়েছে এবং রটারড্যাম ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের অফিসিয়াল সিলেকশনে জায়গা পেয়েছে নুহাশ হুমায়ূনের ‘পেট কাটা ষ’। ৯৬তম অস্কারে বাংলাদেশ থেকে মনোনীত হয় মোহাম্মদ রাব্বি মৃধা পরিচালিত ‘পায়ের তলায় মাটি নাই’।

‘শনিবার বিকেল’ সিনেমার দৃশ্যে নুসরাত ইমরোজ তিশা (ছবি: ছবিয়াল)

একনজরে ঢালিউড ২০২৩
ব্লকবাস্টার: প্রিয়তমা
সুপারহিট: সুড়ঙ্গ
সারপ্রাইজ সাড়া: প্রহেলিকা, ১৯৭১ সেই সব দিন, জ্বীন
হতাশা: এমআর-নাইন: ডু অর ডাই, অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন, কিল হিম, অন্তর্জাল, ব্ল্যাক ওয়ার
আলোচিত: মুজিব: একটি জাতির রূপকার, লিডার: আমিই বাংলাদেশ
প্রশংসিত: সাঁতাও, আদিম, মায়ার জঞ্জাল, ওরা ৭ জন, জেকে ১৯৭১, বীরকন্যা প্রীতিলতা, আম কাঁঠালের ছুটি
আইটেম গার্ল: নুসরাত ফারিয়া (কলিজা আর জান, সিনেমা: সুড়ঙ্গ), ববি হক (চালাও গুলি, সিনেমা: ব্ল্যাক ওয়ার)
দেশের বাইরে মুক্তি: শনিবার বিকেল
দেশে বলিউডের সিনেমা: পাঠান, কিসি কা ভাই কিসি কি জান, জওয়ান, অ্যানিমেল, ডানকি

‘১৯৭১ সেই সব দিন’ সিনেমার পোস্টার (ছবি: জাজ মাল্টিমিডিয়া)

২০২৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ঢালিউডের ৫২ সিনেমা

  • ব্ল্যাক ওয়ার (পরিচালক: সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ, অভিনয়ে আরিফিন শুভ, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী)
  • অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন (পরিচালক: আবু রায়হান জুয়েল, অভিনয়ে সিয়াম আহমেদ, পরীমণি)
  • সাঁতাও (পরিচালক: খন্দকার সুমন, অভিনয়ে আইনুন পুতুল, মো. ফজলুল হক)
  • বীরকন্যা প্রীতিলতা (পরিচালক: প্রদীপ ঘোষ, অভিনয়ে নুসরাত ইমরোজ তিশা)
  • ভাগ্য (পরিচালক: মাহবুবুর রশিদ মুন্না, অভিনয়ে নিপুণ, মুন্না)
  • কথা দিলাম (পরিচালক: রকিবুল আলম রকিব, অভিনয়ে কেয়া, জামশেদ শামীম)
  • মন দিয়েছি তারে (পরিচালক: মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, অভিনয়ে আসিফ ইমরোজ, অমৃতা খান)
  • বুবুজান (পরিচালক: শামীম আহমেদ রনি প্রধান, অভিনয়ে শান্ত খান, মাহিয়া মাহি, নিশাত নাওয়ার সালওয়া)
  • মায়ার জঞ্জাল (পরিচালক: ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরী, অভিনয়ে অপি করিম, ঋত্বিক চক্রবর্তী, সোহেল মণ্ডল)
  • ওরা ৭ জন (পরিচালক: খিজির হায়াত খান, অভিনয়ে ইন্তেখাব দিনার, জাকিয়া বারী মম, খিজির হায়াত খান, ইমতিয়াজ বর্ষণ)
  • জেকে-১৯৭১ (পরিচালক: ফাখরুল আরেফীন খান, অভিনয়ে সৌরভ শুভ্র দাশ, সব্যসাচী চক্রবর্তী)
  • রেডিও (পরিচালক: অনন্য মামুন, অভিনয়ে রিয়াজ, জাকিয়া বারী মম)
  • একটি না-বলা গল্প (পরিচালক: পঙ্কজ পালিত, অভিনয়ে রওনক হাসান, রুনা খান, প্রাণ রায়)
  • লিডার: আমিই বাংলাদেশ (পরিচালক: তপু খান, অভিনয়ে শাকিব খান, শবনম বুবলী)
  • কিল হিম (পরিচালক: মো. ইকবাল, অভিনয়ে অনন্ত জলিল, বর্ষা)
  • জ্বীন (পরিচালক: নাদের চৌধুরী, অভিনয়ে সজল নূর, পূজা চেরি, জিয়াউল রোশান, জান্নাতুন নূর মুন)
  • শত্রু (পরিচালক: সুমন ধর, অভিনয়ে বাপ্পী চৌধুরী, জাহারা মিতু)
  • লোকাল (পরিচালক: সাইফ চন্দন, অভিনয়ে আদর আজাদ, শবনম বুবলী)
  • পাপ: প্রথম চাল (পরিচালক: সৈকত নাসির, অভিনয়ে জিয়াউল রোশান, ববি হক, জাকিয়া মাহা, আরিয়ানা জামান)
  • আদম (পরিচালক: আবু তাওহীদ হিরণ, অভিনয়ে ইয়াশ রোহান, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী)
  • প্রেম প্রীতির বন্ধন (পরিচালক: সোলায়মান আলী লেবু, অভিনয়ে অপু বিশ্বাস, জয় চৌধুরী)
  • মা (পরিচালক: অরণ্য আনোয়ার, অভিনয়ে পরীমণি)
  • পায়ের তলায় মাটি নাই (পরিচালক: মোহাম্মদ রাব্বি মৃধা, অভিনয়ে মুস্তাফা মনওয়ার, দীপান্বিতা মার্টিন)
  • সুলতানপুর (পরিচালক: সৈকত নাসির, অভিনয়ে অধরা খান, সাঞ্জু জন)
  • এমআর-নাইন: ডু অর ডাই (পরিচালক: আসিফ আকবর, অভিনয়ে এবিএম সুমন, সাক্ষী প্রধান)
  • আদিম (পরিচালক: যুবরাজ শামীম, অভিনয়ে বাদশা, সোহাগী, দুলাল)
  • লাল শাড়ি (পরিচালক: বন্ধন বিশ্বাস, অভিনয়ে অপু বিশ্বাস, সাইমন সাদিক)
  • প্রিয়তমা (পরিচালক: হিমেল আশরাফ, অভিনয়ে শাকিব খান, ইধিকা পাল)
  • সুড়ঙ্গ (পরিচালক: রায়হান রাফী, অভিনয়ে আফরান নিশো, তমা মির্জা)
  • প্রহেলিকা (পরিচালক: চয়নিকা চৌধুরী, অভিনয়ে মাহফুজ আহমেদ, শবনম বুবলী)
  • ক্যাসিনো (পরিচালক: সৈকত নাসির, অভিনয়ে নিরব হোসেন, শবনম বুবলী)
  • অন্তর্জাল (পরিচালক: দীপঙ্কর দীপন, অভিনয়ে সিয়াম আহমেদ, বিদ্যা সিনহা মিম, এবিএম সুমন, সুনেরাহ বিনতে কামাল)
  • দুঃসাহসী খোকা (পরিচালক: মুশফিকুর রহমান গুলজার, অভিনয়ে সৌম্য জ্যোতি)
  • আম কাঁঠালের ছুটি (পরিচালক: মোহাম্মদ নূরুজ্জামান, অভিনয়ে লিয়ন, জুবায়ের, আরিফ, তানজিল)
  • ১৯৭১ সেই সব দিন (পরিচালক: হৃদি হক, অভিনয়ে ফেরদৌস আহমেদ, তারিন জাহান, সজল নূর, সানজিদা প্রীতি, লিটু আনাম, হৃদি হক)
  • সুজন মাঝি (পরিচালক: দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, অভিনয়ে ফেরদৌস আহমেদ, নিপুণ)
  • যন্ত্রণা (পরিচালক: আরিফুর জামান আরিফ, অভিনয়ে আদর আজাদ, মানসী প্রকৃতি, সায়মা স্মৃতি)
  • মেঘের কপাট (পরিচালক: ওয়ালিদ আহমেদ, অভিনয়ে রাকিব হোসেন ইভন, সিন্ডি রোলিং, সাবরিনা তন্বী)
  • অসম্ভব (পরিচালক: অরুণা বিশ্বাস, অভিনয়ে সোহানা সাবা, গাজী আব্দুন নূর, স্বাগতা, অরুণা বিশ্বাস)
  • ইতি চিত্রা (পরিচালক: রাইসুল ইসলাম অনিক, অভিনয়ে রাকিব হোসেন ইভন, জান্নাতুল ঋতু)
  • গোয়িং হোম (পরিচালক: মাশরুর পারভেজ, অভিনয়ে মাশরুর পারভেজ, নুসরাত জাহান জেরী)
  • মাইক (পরিচালক: এফ এম শাহীন ও হাসান জাফরুল বিপুল, অভিনয়ে ফেরদৌস, তানভিন সুইটি)
  • বঙ্গমাতা (পরিচালক: গৌতম কৈরী, অভিনয়ে জ্যোতিকা জ্যোতি, ফারজানা ছবি, মেঘলা টুপুর)
  • ঘর ভাঙ্গা সংসার (পরিচালক: মনতাজুর রহমান আকবর, অভিনয়ে ডিপজল, ‌আঁচল, শিরিন শিলা)
  • বৃদ্ধাশ্রম (পরিচালক: এস ডি রুবেল, অভিনয়ে ববি হক, এস ডি রুবেল)
  • আমি টোকাই (পরিচালক: বাবুল রেজা, অভিনয়ে হিরো আলম)
  • ফিরে দেখা (পরিচালক: রোজিনা, অভিনয়ে নিরব হোসেন, অর্চিতা স্পর্শিয়া, ইলিয়াস কাঞ্চন, রোজিনা)
  • ফুলজান (পরিচালক: আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, অভিনয়ে সনি রহমান, মিষ্টি জান্নাত)
  • যেমন জামাই তেমন বউ (পরিচালক: মনতাজুর রহমান আকবর, অভিনয়ে ডিপজল, মৌ খান)
  • মুজিব: একটি জাতির রূপকার (পরিচালক: শ্যাম বেনেগাল, অভিনয়ে আরিফিন শুভ, নুসরাত ইমরোজ তিশা, চঞ্চল চৌধুরী, নুসরাত ফারিয়া)
  • মুজিব ভাই (পরিচালক: চন্দন কুমার বর্মণ ও সোহেল মোহাম্মদ রানা)
  • আজব ছেলে (পরিচালক: মানিক মানবিক, অভিনয়ে রিদওয়ান সিদ্দিকী, তৌকীর আহমেদ, তাহমিনা অথৈ)
  • ফ্ল্যাশব্যাক ৭১ (পরিচালক: বাহার উদ্দিন খেলন, অভিনয়ে বাপ্পারাজ, প্রার্থনা দীঘি)

ঢালিউড

জোড়া সিনেমা নিয়ে ফিরছেন আফরান নিশো

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

আফরান নিশো (ছবি: ফেসবুক)

‘সুড়ঙ্গ’ পেরিয়ে ফিরছেন অভিনেতা আফরান নিশো। নতুন দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। দুটিতেই প্রধান চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। তবে পরিচালক ও ছবি দুটির নাম এখনো জানা যায়নি। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে এসব ঘোষণা আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নতুন সিনেমা দুটি প্রযোজনা করবে এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট। ভারতীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস (এসভিএফ) ও ঢাকার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে গঠিত হয়েছে এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেড। এসভিএফ আলফা-আই এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল ও এসভিএফ-এর চেয়ারম্যান মহেন্দ্র সোনি।

২০২৩ সালে ঈদুল আজহায় রায়হান রাফী পরিচালিত ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় আফরান নিশোর। এতে তার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। এরপর থেকে তার নতুন কাজের ব্যাপারে কৌতূহল ছিলো ভক্ত-দর্শকদের। অবশেষে বড় পর্দায় ফেরার সুখবর দিলেন তিনি।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

‘তুফান’ টিজারে শাকিবের হুংকার

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের আলোচিত সিনেমা ‘তুফান’-এর টিজার প্রকাশ্যে এলো। রায়হান রাফীর পরিচালনায় এতে অপ্রতিরোধ্য গ্যাংস্টারের আমেজে দেখা গেছে তাকে। বিভিন্ন অ্যাকশন দৃশ্যে তার লুক ও মেজাজ আভাস দিচ্ছে, তুফান বয়ে যাবে সিনেমাহলে!

১ মিনিট ২৮ সেকেন্ডের টিজারের শুরুতে শাকিব বলেন, ‌‘পূর্বের কথা মোতাবেক, এখন থেকে পুরো দেশকে তুফানের হাতে তুলিয়া দেবো। সে যা চাইবে পাইবে, যা করিতে চাইবে করিবে। তাহাকে কোনো কিছুতেই বাধা দেয়ার এখতিয়ার কেউই রাখিতে পারিবে না। আর এর ব্যত্যয় ঘটিলে…।’ এরপরই শুরু হয় তার আগ্রাসী কর্মকাণ্ড।

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

টিজারে শেষ দৃশ্যের আগে অন্যমাত্রা নিয়ে হাজির হন অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। তিনি উপহাস মোড়ানো হাসি দিয়ে বলেন, ‘তুফান খুব ভয় পাইছিরে।’ এরপর বাথটাবে পানিতে বসে থাকা শাকিব হুংকার ছাড়েন।

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে চঞ্চল চৌধুরী (ছবি: চরকি)

গতকাল (৭ মে) বিকেলে সিনেমাটির তিন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা আই, চরকি ও এসভিএফ-এর সোশ্যাল মিডিয়া পেজে ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয় টিজার।

টিজারে ধুন্ধুমার অ্যাকশন দৃশ্যের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে টাইটেল গান। এর কথা এমন– ‘প্রলয়ের তুফান, আসছে এ তুফান, প্রলয়ের তুফান, থামাও এ তুফান’। এটি গেয়েছেন আরিফ রহমান জয়। তার সঙ্গে সহ-কণ্ঠ দিয়েছেন সাম্যব্রত দৃপ্ত। র‍্যাপ গেয়েছেন র‍্যাপস্টা দাদু। এর কথা লিখেছেন তাহসান শুভ, সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন নাভেদ পারভেজ।

টিজার প্রসঙ্গে পরিচালক রায়হান রাফী বলেন, “বাংলা সিনেমাকে বিশ্ব দরবারে নতুনভাবে চেনাবে ‘তুফান’। অনেক সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি পরিবর্তন করে। ‘তুফান’ তেমন একটি সিনেমা হতে যাচ্ছে। বাংলা সিনেমার মানদণ্ড অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে। বলা যায়, ‘তুফান’ আমার জীবনের একটি স্বপ্নের প্রকল্প। শাকিব ভাইকে এই সিনেমায় পাওয়া আশীর্বাদ।”

‘তুফান’ সিনেমার টিজারে শাকিব খান (ছবি: চরকি)

‘তুফান’ দর্শকের মধ্যে ঝড় তুলবে বলে আশাবাদী এসভিএফ-এর পরিচালক ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা মহেন্দ্র সোনি, আলফা-আই স্টুডিওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল এবং চরকির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি। তিনজনই জানিয়েছেন, টিজার প্রকাশের পর দারুণ সাড়া মিলছে।

আসন্ন ঈদুল আজহায় সিনেমাহলে মুক্তি পাবে ‘তুফান’। এতে শাকিব ও চঞ্চলের পাশাপাশি অভিনয় করেছেন মিমি চক্রবর্তী, মাসুমা রহমান নাবিলাসহ অনেকেই।

পড়া চালিয়ে যান

ঢালিউড

‘ফাতিমা’ সিনেমাহলে কবে আসছে জানালেন ফারিণ

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ফেসবুক)

বাংলাদেশের বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণের। তার নতুন সিনেমা ‘ফাতিমা’ আগামী ২৪ মে সিনেমাহলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এতে নাম ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে।

গতকাল (৫ মে) সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ফাতিমা’র পোস্টার শেয়ার দিয়ে ফারিণ লিখেছেন, “আসছে দুই সময়ের দুই সংগ্রামের আখ্যান ‘ফাতিমা’। দেখুন আগামী ২৪ মে থেকে আপনার কাছের সিনেমা হলে!”

‘ফাতিমা’র পোস্টারে তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: আউটকাস্ট ফিল্মস)

পোস্টারে দেখা যাচ্ছে, তাসনিয়া ফারিণ একদৃষ্টিতে একদিকে তাকিয়ে আছেন। এতে ১৯৭১ ও ২০২৩ সাল উল্লেখ রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময়কার ও ২০২৩ সালের দুটি পৃথক সময়ের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে সিনেমাটি। পোস্টারের নিচের অংশে গরুর গাড়িতে চড়ে ও পায়ে হেঁটে অনেককে আশ্রয়ের খোঁজে যেতে দেখা যাচ্ছে।

‘ফাতিমা’য় অসাধারণ অভিনয়ের জন্য ইরানের ৪২তম ফজর আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পুরস্কার পেয়েছেন তাসনিয়া ফারিণ। ইস্টার্ন ভিস্তা শাখায় ক্রিস্টাল সিমোর্গ স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে তাকে।

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ফেসবুক)

ইরানের পর গত বছর অরল্যান্ডো ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এবং ইন্ডি গ্যাদারিং আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের অফিসিয়াল সিলেকশনে স্থান পায় ‘ফাতিমা’।

‘ফাতিমা’য় তাসনিয়া ফারিণ ছাড়াও অভিনয় করেছেন ইয়াশ রোহান, সংগীতশিল্পী পান্থ কানাই, তারিক আনাম খান, মানস বন্দ্যোপাধ্যায়, আয়েশা মনিকা, গাউসুল আলম শাওন।

আউটকাস্ট ফিল্মস প্রযোজিত ‘ফাতিমা’র নাম শুরুতে ছিলো ‘দাহকাল’। ২০১৭ সালে এর শুটিং শুরু হলেও অর্থনৈতিক জটিলতার কারণে কাজ শেষ করে সাত বছর লেগেছে। চিত্রগ্রহণ করেছেন তুহিন তমিজুল।

তাসনিয়া ফারিণ (ছবি: ইয়াকুব)

সিনেমাটি প্রযোজনা ও পরিচালনা করেছেন ধ্রুব হাসান। গল্পটি তারই। তিনি ও আদনান হাবিব চিত্রনাট্য লিখেছেন। তারাই সম্পাদনা ও নির্বাহী প্রযোজকের দায়িত্ব পালন করেছেন। সহ-প্রযোজক আরমান কাদরী, আরজু মানারা বেগম, শামসুর রাহমান আলভী ও তুনাজ্জিনা চৌধুরী পুনম। শিল্প নির্দেশনায় তারেক বাবলু, শিহাব নুরুন নবী ও উত্তম গুহ। শব্দসজ্জা করেছেন শৈব তালুকদার। পোশাক পরিকল্পনায় জুনায়েদ বোগদাদি জিমি ও এদিলা ফারিদ তুরিন।

গানের সুর ও সংগীত এবং আবহ সংগীত পরিচালনা করেছেন পাভেল আরীন। শারমিন সুলতানা সুমি লেখার পাশাপাশি একটি কণ্ঠ দিয়েছেন। এছাড়া রয়েছে সোমনূর মনির কোনালের গাওয়া একটি গান।

পশ্চিমবঙ্গের ‘আরো এক পৃথিবী’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তাসনিয়া ফারিণের। এটি মুক্তি পায় ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে।

পড়া চালিয়ে যান

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ