Connect with us

ছবি ও কথা

লাল বেনারসিতে সৌরভকে বিয়ে করলেন দর্শনা

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

ভালোবেসে ঘর বাঁধলেন ভারতীয় নায়িকা দর্শনা বণিক ও অভিনেতা সৌরভ দাস। গত ১৫ ডিসেম্বর সাত পাঁকে বাঁধা পড়েন তারা। কলকাতার বাইপাসের ধারে একটি ব্যাঙ্কোয়েটে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। বেশ কিছুদিন প্রেম পর্বের পর দর্শনার সিঁথিতে সিঁদুর পরালেন সৌরভ।

বিয়েতে রুপার কাজ করা লাল বেনারসি আর সোনার গয়নায় সেজেছেন দর্শনা। কপালে সোনার টিকলি। নাকে নথ। শাড়িতে রয়েছে মুগা জরির কাজ। বর-কনের ছবি আঁকা গাছকৌটো হাতে নিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন নায়িকা। অন্যদিকে সাদা ধুতি ও শেরওয়ানির সঙ্গে লাল রঙের কাশ্মীরি শাল পরেছেন সৌরভ। তার গলায় সোনার হার। চোখে চশমা। হাতে ঘড়ি।

বিয়ের আসরে বাঙালি খাবার দিয়ে অতিথি আপ্যায়ন করেছেন সৌরভ-দর্শনা। মেন্যুতে ছিলো বাসন্তী পোলাও, চিংড়ির মালাইকারি, ফিশ ফ্রাই, ভেটকির পাতুরি, পাঁঠার মাংস। পরিবার ও আত্মীয়স্বজনের পাশাপাশি নিমন্ত্রিতদের মধ্যে ছিলেন নীল ভট্টাচার্য, তৃণা সাহা, সৌম্যজিৎ আদক, সোহিনী সরকারসহ টালিউডের কয়েকজন চেনা মুখ।

গত বছর মুক্তিপ্রাপ্ত সৌমজিৎ আদাকের ‘অল্প হলেও সত্যি’তে একসঙ্গে অভিনয় করতে গিয়ে দর্শনা ও সৌরভের বন্ধুত্ব হয়। তারপর স্টার জলসার ‘গোলেমালে গোল’ রিয়েলিটি শোতে অংশ নিয়ে তাদের সখ্য গড়ে ওঠে। তাদের প্রেম প্রায় একবছরের। কিন্তু নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে কখনো মুখ খোলেননি তারা। প্রেম নিয়ে লুকোছাপা করলেও ঢাকঢোল পিটিয়ে ধুমধাম করে বিয়ে সেরে নিলেন দু’জনে।

২০২৪ সালের মার্চ-এপ্রিল নাগাদ মধুচন্দ্রিমা উদযাপন করতে বিদেশে যেতে পারেন দর্শনা ও সৌরভ।

বিয়ের দিন সকালে গায়ে হলুদের সকালে হলুদ রঙের সিল্কের শাড়ি ও স্লিভলেস ব্লাউজে দর্শনা বণিক। আর বেহালায় নিজের বাড়িতে গায়ে হলুদে সাদা পাঞ্জাবি ও সাদা ধুতিতে দেখা যায় সৌরভকে।

দর্শনা বণিক ভারতের বাংলা সিনেমার পাশাপাশি বলিউডে ও দক্ষিণী সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

দর্শনা বণিক ঢালিউডের দুটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এরমধ্যে ‘অপারেশন সুন্দরবন’ মুক্তি পেয়েছে গত বছর। এর প্রিমিয়ারে অংশ নিতে ঢাকায় এসেছিলেন তিনি। ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের বিপরীতে ‘অন্তরাত্মা’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন ২৯ বছর বয়সী এই তারকা। এটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। সংগীতশিল্পী ইমরান মাহমুদুলের সঙ্গে দুটি মিউজিক ভিডিওতে মডেল হয়েছেন দর্শনা বণিক। এগুলো হলো ‘মেঘের ডানা’ ও ‘তোর নামের ইচ্ছেরা’।

ভারতীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ের ‘মন্টু পাইলট’ ওয়েব সিরিজে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের সুবাদে বেশি প্রশংসা কুড়িয়েছেন সৌরভ দাস। ৩৪ বছর বয়সী এই তারকা এখন ওয়েব সিরিজজের ব্যস্ত অভিনেতা। ২০১৫ সালে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘আশিকি’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় তার অভিষেক। যৌথ প্রযোজনায় ‘প্রেম আমার ২’ সিনেমাতেও দেখা গেছে তাকে।

ছবি ও কথা

ফিল্মফেয়ারের লালগালিচায় জামদানি ও কাতান শাড়িতে নায়িকারা

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস বাংলার সপ্তম আসরের বিজয়ী তালিকা ঘোষণা করা হলো। ভারতের ফিল্মফেয়ার ম্যাগাজিনের আয়োজনে গতকাল (২৯ মার্চ) ছিলো এই আয়োজন। ২০২৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা সিনেমার মধ্য থেকে সেরাদের ‘ব্ল্যাক লেডি’ দেওয়া হয়েছে। জমকালো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, সৌরসেনী মৈত্র ও সৌরভ দাস। পুরস্কার বিতরণের আগে লালগালিচায় আলো ছড়িয়েছেন নায়িকারা।

জামদানি শাড়িতে জয়া আহসান (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

নুসরাত ফারিয়া (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

কাতান শাড়িতে ‘প্রিয়তমা’ তারকা ইধিকা পাল (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

মঞ্চে কোয়েল মল্লিকের নাচ (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

কৌশানি মুখার্জি (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

ঐন্দ্রিলা সেন ও অঙ্কুশ হাজরা (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলী দম্পতি (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

‘শেষ পাতা’ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেত্রী (সমালোচক) শাখায় মনোনীত শাড়িতে গার্গী রায় চৌধুরী (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

সৌরসেনী মৈত্র (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

মৃণাল সেনের বায়োপিক ‘পদাতিক’ সিনেমার অভিনেত্রী মনামি ঘোষ (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

‘মানুষ’ সিনেমার অভিনেত্রী সুস্মিতা চ্যাটার্জি (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

লালগালিচায় গোলাপি আবহে এনা সাহা (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

শাড়িতে পায়েল মুখার্জি (ছবি: ফিল্মফেয়ার)

পড়া চালিয়ে যান

ছবি ও কথা

র‍্যাম্পে শাকিবের নায়িকা সোনাল চৌহান, বলিউডের আরো যারা ছিলেন

সিনেমাওয়ালা ডেস্ক

Published

on

ভারতের মুম্বাইয়ে হয়ে গেলো দেশটির ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম আয়োজন ‘ল্যাকমে ফ্যাশন উইক’। জমকালো র‍্যাম্পে হেঁটে আলো কেড়েছেন বলিউড অভিনেত্রীরা। ভারতীয় ডিজাইনারদের নজরকাড়া পোশাকে শো-স্টপার হয়েছেন তারা। ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের মঞ্চে মন জয় করে নেওয়া অভিনেত্রীদের একঝলকে দেখে নিন।

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের ‘দরদ’ সিনেমার নায়িকা সোনাল চৌহান পরেছেন লম্বা গলার জ্যাকেটের মতো টপের সঙ্গে প্রিন্টের শারারা।

বলিউড অভিনেত্রী সোনাল চৌহানের পোশাকটি ডিজাইন করেছেন সেজাল কামদার। ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের পঞ্চম দিনে রানওয়েতে দেখা গেছে তাদের।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের পঞ্চম ও শেষ দিন ফ্যাশন ব্র্যান্ড কালকির মেরুন মারমেইড স্কার্ট ও কাঁধখোলা সিল্কের ব্লাউজে জানবি কাপুর।

কিছুদিন আগে দুর্ঘটনায় পড়ে সারা আলী খানের পেটের একাংশে ক্ষত হয়েছে। পোড়া দাগ না লুকিয়ে র‍্যাম্পে হেঁটে প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের চতুর্থ দিন বরুণ চাক্কিলামের ডিজাইন করা রুপালি লেহেঙ্গা ও স্লিভলেস ব্লাউজ পরেছেন সারা আলি খান। এর সঙ্গে কানে ছিলো লম্বা রুপালি দুল।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের চতুর্থ দিন মারমেইড কাটের বডিকন গাউনে তাপসী পান্নু। এটি ডিজাইন করেছেন গৌরি ও নয়নিকা।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের তৃতীয় দিন ভারতের জুতা ও পোশাকের ব্র্যান্ড স্কেচার্সের শো-স্টপার হন কৃতি স্যানন।

কৃতি স্যানন স্কেচার্সের ব্র্যান্ডের রেট্রোভার্স কালেকশনের বহুরঙের বডিকন ড্রেস ও নীল স্নিকার পরে র‍্যাম্পে হেঁটেছেন।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকে চতুর্থ দিন শান্তনু ও নিখিলের ডিজাইনে মেঝেছোঁয়া রুপালি স্কার্টে তৃপ্তি দিমরি। এর সঙ্গে ছিলো স্লিভলেস কালো টপ, হাতমোজা ও স্টাইলিশ বেল্ট।

ল্যাকমে গ্র্যান্ড ফিনালেতে কাঁধখোলা কালো পাপড়ির পোশাক ও লেদারের বুটে অনন্যা পাণ্ডে।

ডিজাইনার রাহুল মিশ্রর শো-স্টপার হয়েছেন অনন্যা পাণ্ডে।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের চতুর্থ দিনে সাক্ষী ভাটির ডিজাইন করা বেগুনি লেহেঙ্গায় ফাতিমা সানা শেখ।

ডিজাইনার রিতিকা মিরচান্দানির পা-খোলা স্কার্ট ও সাদা টপে রাকুল প্রীত সিং।

অরবিন্দ আমপুলার ডিজাইন করা ভিকা কালেকশন থেকে লেহেঙ্গা স্কার্ট ও উঁচুগলার ব্লাউজে শ্রুতি হাসান।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের পঞ্চম ও সমাপনী দিনে রানা গিলের ডিজাইন করা কালো ফুলেল ব্লেজারে মাধুরী দীক্ষিত।

চারু ও বসুন্ধরার ডিজাইন করা ‘ওয়ান ইনফিনিট’ কালেকশন থেকে রুপালি লেহেঙ্গা ও কাঁচখচিত স্লিভলেস ব্লাউজ পরেছেন ডায়ানা পেন্টি।

‘টুয়েলভথ ফেল’ তারকা মেধা শংকরের অভিষেক হলো ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের মঞ্চে। ডিজাইনার জুটি পরশ ও শালিনীর শো-স্টপার হয়েছেন তিনি। ‘এলেমেন্টাল সিম্ফনি’ শীর্ষক তাদের নতুন কালেকশন থেকে সিলভার শিয়ার মেটালিক ড্রেস পরেছেন মেধা।

রাজকীয় সাজে দিয়া মির্জা পোশাকের ব্র্যান্ড ইনকা’র শো-স্টপার হয়েছেন। তিনি পরেছেন কালো-রুপালি লম্বা শার্ট ড্রেস। এর পেছনের লম্বা অংশ নজরকাড়া। অলঙ্কার হিসেবে তার গলায় দেখা গেছে বড় পাথরের নেকলেস।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের চতুর্থ দিন আনুশকা রেড্ডির ডিজাইনে সোনালি ফুলেল কারুকাজের প্যাস্টেল লেহেঙ্গায় মালাইকা অরোরা।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের তৃতীয় দিন কালকি কোয়েচলিন ভারতীয় লাক্সারি ফ্যাশন ব্র্যান্ড আইকেয়াহ’র শো-স্টপার হয়েছেন। তিনি পরেছেন ধুতি-ঢঙের গোলাপের মোটিফ দেওয়া লম্বা কুঁচির রুপালি স্কার্ট ও সোনালি ব্লাউজ। এর সূক্ষ্ম ডিজাইনের গ্লিটার দেওয়া কলার আকর্ষণীয়। তার হাতে স্বর্ণের একাধিক বালা।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের তৃতীয় দিন ডিজাইনার অনামিকা খান্নার শো-স্টপার হয়েছেন বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় কাপুরের মেয়ে শানায়া কাপুর। তিনি পরেছেন সাদা হাই লো-কাটের শার্ট। এতে রয়েছে পুঁতি ও কয়েনের এম্বেলিশমেন্ট। পায়ে দিয়েছেন কালো বিডস বসানো হাঁটু অবধি বুট। এছাড়া আছে স্বর্ণের অলঙ্কার।

সোনালি ও কালো রঙের লেহেঙ্গায় মোহনীয় দিব্যা খোসলা কুমার।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের তৃতীয় দিন রাজদীপ রানাওয়াতের শো-স্টপার হয়েছেন দিব্যা খোসলা কুমার।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের দ্বিতীয় দিন ডিজাইনার সোহায়া মিশ্রর চোলা কালেকশনের রুপালি কুর্তা ও ধূসর পালাজ্জোতে কঙ্কনা সেন শর্মা।

ডিজাইনার সোহায়া মিশ্রর চোলা কালেকশনের সাদা শার্ট, কালো কোটি ও কালো ব্যাগি প্যান্ট পরেছেন নেহা ধুপিয়া। এর সঙ্গে তিনি পায়ে দিয়েছেন কালো বুট।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের পঞ্চম দিন দীক্ষা খান্নার ডিজাইন করা পোশাকে শেহনাজ গিল।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের পঞ্চম দিন নির্মূহের ডিজাইন করা পোশাকে অদিতি রাও হায়দারি।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের দ্বিতীয় দিন উর্বশী কৌরের ডিজাইন করা নীল-সাদা স্ট্রাইপের পোশাকে রত্না পাঠক শাহ।

উর্বশী কৌরের ডিজাইন করা শাড়ি দিয়ে বানানো জরির লাল পোশাকে তিলোত্তমা সোম।

ল্যাকমে ফ্যাশন উইকের প্রথম দিন র‍্যাম্পে কারিশমা তান্না।

পড়া চালিয়ে যান

ছবি ও কথা

নারী দিবসে নায়িকারা যা বললেন

সিনেমাওয়ালা রিপোর্টার

Published

on

আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ (৮ মার্চ)। দেশের বিনোদন অঙ্গনের জনপ্রিয় অভিনেত্রীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের মনের কথা লিখেছেন। তাদের এসব অনুভূতিতে উঠে এসেছে নারীদের জন্য অনুপ্রেরণা ও এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।

অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী একটি ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, ‘সমাজের চোখে সেরা হওয়ার জন্য আমরা নারীরা প্রায়ই ভুলে যাই, আমরা প্রত্যেকেই কোনো না কোনো দিক দিয়ে আলাদা। তাই অন্যের কাছে সেরা হওয়ার চেষ্টা না করে আমাদের উচিত নিজেদের স্বতন্ত্র সত্তা আবিষ্কার করা। এই সত্তাই আমাদের জীবনের দৌড়ে সামনের সারিতে এগিয়ে নিয়ে যাবে। নারীদের পাশে যারা আছেন, থাকবেন, সেসব পুরুষ বন্ধুদের এবং অবশ্যই নারী বন্ধুদের আজকের এই দিনে জানাই বিশেষ শুভেচ্ছা।’

অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ লিখেছেন, ‘সমস্ত কুসংস্কারের বাধা পেরোনো কঠিন। মেয়েরা যখনই ভ্রমণে যায় তখন তাকে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। তাদের ব্যাপারে সবসময় কিছু ধারণা করে নেয় লোকে। দুর্বলতার একটি মুহূর্ত অনুমোদিত নয়। একমুহূর্তের জন্য ত্রুটি থাকা যাবে না। সবসময় নিখুঁত হওয়া চাই। ভুল করা যাবে না। কিন্তু আমরা মেয়েরা শুধুই মানুষ এবং নিজের মতো হওয়াই ভালো। তাই শুধু নিজের মতো পথ চলুন এবং স্মৃতি জমা করুন। দিনের শেষে নিজেকে খুশি বলতে পারার মতো থাকুন।’

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বেগুণি রঙের হৃদয় আকৃতির তিনটি ইমোজি জুড়ে দিয়ে নারী দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘আমি নারী। এটাই আমার শক্তি। পরিশ্রম আর সততা দিয়ে নারীশক্তিকে নিয়ে যেতে চাই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। কোনো কিছুর সঙ্গে আপোস না করে আমার এই হার না মানা গল্প চলতে থাকুক আপনাদের কাছে।’

চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী নারীর বিভিন্ন সংজ্ঞা দিয়েছেন, ‘নারী মানে শক্তি, নারী মানে ভালোবাসা, নারী মানে মায়া, নারী মানে মা, নারী মানে কোমলতা, নারী মানে সততা, নারী মানে সাহসিকতা, নারী মানে মর্যাদা, নারী মানে যোগ্যতা, নারী মানে সম্মান, নারী মানে ধৈর্য, নারী মানে সৌন্দর্য! বিশ্বের সকল নারীদের প্রতি জানাই নারী দিবসের অনেক ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা!’

মা ছবি সাহার সঙ্গে মিলিয়ে একই রঙের পোশাক পরেছেন চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। সেগুলো শেয়ার দিয়ে নারী দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এই তারকা।

অভিনেত্রী সাফা কবির একটি বিশেষ ভিডিও শেয়ার করে বলেছেন, ‘আসুন আমাদের শক্তি, ক্ষমতা, ধৈর্য ও আবেগকে উদযাপন করি। নারী দিবসের শুভেচ্ছা।’

চিত্রনায়িকা পূজা চেরি সাদা শাড়ি পরা কয়েকটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ভালোবাসা, মূল্যায়ন ও ক্ষমতায়নে পূর্ণ একটি দিন কাটুক সবার। নারী দিবসের শুভেচ্ছা।’

অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা শুটিংয়ে নারী দিবস উদযাপন করছেন। তার কথায়, ‘আমার কাজকে আমি ভালোবাসি। আমি নিজেকে ভালোবাসি। আপনাদের সবাইকে ভালোবাসি।’

অভিনেত্রী সামিরা খান মাহি নারী দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে ব্যবহার করেছেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গানের কথা, ‘দুঃখ যদি না পাবে তো/ দুঃখ তোমার ঘুচবে কবে?/ বিষকে বিষের দাহ দিয়ে/ দহন করে মারতে হবে/ জ্বলতে দে তোর আগুনটারে/ ভয় কিছু না করিস তারে/ ছাই হয়ে সে নিভবে যখন/ জ্বলবে না আর কভু তবে/ দুঃখ যদি না পাবে তো/ দুঃখ তোমার ঘুচবে কবে?’

দুই প্রজন্মের দুই মডেল-অভিনয়শিল্পী আনিকা কবির শখ ও আইশা খান দুই হাত দিয়ে হৃদয় আকৃতি বানানো ছবি পোস্ট করেছেন। উভয়ে লিখেছেন ‘কেবল হৃদয় নয়… করবে নারী বিশ্বজয়।’ এর সঙ্গে নারী দিবস, অন্তর্ভুক্তিকে অনুপ্রাণিত করুন হ্যাশট্যাগ দিয়েছেন তারা।

পড়া চালিয়ে যান

সিনেমাওয়ালা প্রচ্ছদ